শিক্ষাঙ্গন

রাগের মাথায় ফোনগুলি ভেঙে ফেলা হয়

পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্র সচিব ও প্রধান শিক্ষক মফিজুল হক জানান, পরীক্ষা চলাকালে তার কেন্দ্রে দুই কক্ষ পরিদর্শকসহ পরীক্ষার্থীদের ১৮টি মোবাইল জব্দ করে ভেঙে ফেলার ঘটনায় কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুল্লাহকে পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার তার কেন্দ্রে ট্যাগ অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাসিমুল বারী।এসএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ভেঙে ফেলায় পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এক শিক্ষা কর্মকর্তাকে। গতকাল সোমবার ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোবাইল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার সকালে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষাকেন্দ্র পরিদর্শন করে ঘটনাটি দ্রুত নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুল্লাহ বলেন, ‘রাগের মাথায় ফোনগুলি ভেঙে ফেলা হয়। বিষয়টি নিয়ে বসার কথা হয়েছে। ’কেন্দ্র সচিব আরো জানান, পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোন ভাঙার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রের বিভিন্ন কক্ষে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকরা। তারা মঙ্গলবার সকালে পরীক্ষা শুরুর আগে কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে অনীহা প্রকাশ করেন। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের আশ্বাসে দায়িত্ব পালন করেন শিক্ষকরা।

জেলা শিক্ষা অফিসার আলাউদ্দীন আল আজাদ বলেন, ঘটনা শুনে কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। মোবাইল ফোন ভাঙার কাজটি ঠিক হয়নি। মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ভুল করেছেন। এ বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এনএইচ

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button