আওয়ামী লীগবাংলাদেশরাজনীতিলক্ষ্মীপুর

অনুষ্ঠানে দাওয়াত না পেয়ে অসদাচারণ ও দেখে নেওয়ার হুমকি

পল্লিচিকিৎসকদের অভিষেক অনুষ্ঠানে দাওয়াত না পেয়ে অসদাচারণ ও দেখে নেওয়ার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের নাম জয়নাল আবেদীন। তিনি সদর উপজেলার চরশাহী ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য এবং ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক।আজ মঙ্গলবার দুপুর ২টায় সদরের দাসের হাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

চরশাহী, দিঘলী ও কুশাখালী ইউনিয়ন পল্লিচিকিৎসক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাজীব মজুমদার বলেন, হঠাৎ পল্লিচিকিৎসকদের অভিষেক অনুষ্ঠানে এসে ইউপি সদস্য অসদাচারণ করেন। স্থানীয় প্রশাসনের কাছে এ ঘটনার বিচার দাবি করেন তিনি।এ বিষয়ে চরশাহী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম রাজু বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই। অনুষ্ঠানে ইউপি সদস্যের অনুমতি নিতে হবে, এমন কোনো নির্দেশনা নেই।’

পল্লিচিকিৎসকরা জানান, মঙ্গলবার ১২, ১৩ ও ১৮ নম্বর ইউনিয়ন পল্লিচিকিৎসক সমিতির নবনির্বাচিত কার্যকরী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গ্লোব ফার্মাসিটিক্যালস, রেনেটা ফার্মাসিটিক্যালস ও দাশেরহাট মেডিকেল সেন্টারের সৌজন্যে এ অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধান করেন সমিতির কোষাধ্যক্ষ মো. সিরাজুল ইসলাম। সেই অনুষ্ঠানে দাওয়াত না পেয়ে ক্ষিপ্ত হন যুবলীগ নেতা জয়নাল।

চিকিৎসকদের উদ্দেশে জয়নাল বলেন, ‘আমি এডিসির সাথে মিটিংয়ে ছিলাম। আমারে দাওয়াত দিস নাই। তোদের এত বড় সাহস। অনুষ্ঠান করলে আমার অনুমতি নিতে হবে। আমি যুবলীগের সেক্রেটারি বাদই দিলাম। কিন্তু আমি জনপ্রতিনিধি।’জবাবে এক চিকিৎসক বলেন, ‘এটা রাজনৈতিক অনুষ্ঠান নয়’। এতে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওই চিকিৎসককে মারতে তেড়ে যান জয়নাল।এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য ও যুবলীগ নেতা জয়নাল আবেদীন বলেন, ‘অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের কিছু বলিনি। অনুষ্ঠান বন্ধ করতেও বলেনি। আয়োজকদের বলেছি, আমাকে জানালে তো আমিও তাদের আপ্যায়ন করতে পারতাম।’

বাংলা ম্যাগাজিন /এসকে

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button