প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

বোমাসদৃশ্য বস্তু : সেই ট্রাফিক সার্জেন্ট সাময়িক বরখাস্ত

26
পড়া যাবে: < 1 minute

দায়িত্বরত এলাকা ছেড়ে অন্য এলাকায় অবস্থান এবং মোটরসাইকেলে বোমাসদৃশ বস্তু রাখা হলেও বিষয়টি তিনি বুঝতে না পারার কারণে তাকে বরখাস্ত করা হয়।

নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদ বলেন, ‘মোটরসাইকেলে বোমাসদৃশ বস্তু রেখে দেওয়া হলেও তার বুঝতে না পারা এবং দায়িত্বরত এলাকা ছেড়ে অন্য এলাকায় অবস্থান করার কারণেই তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছি। ’

তিনি বলেন, ‘মোটরসাইকেলে ‘গ্রিন্ডিং মেশিন’ রাখার ঘটনাটি ট্রাফিক বিভাগ থেকে তদন্ত করা হচ্ছে। এর বাইরে কিছু নয়। সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছি। তদন্তে দায়িত্ব অবহেলা প্রমাণিত হলে তাকে বিভাগীয় শাস্তি পেতে হবে। ’

আরও পড়ুন:  সাবরিনার রহস্যময় এক বান্ধবীর সংশ্লিষ্টতার খোঁজে গোয়েন্দারা

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় নগরের চৌহাট্টায় ট্রাফিক পয়েন্টে মোটরসাইকেল রেখে চশমার দোকানে যান সার্জেন্ট চয়ন নাইডু। দোকান থেকে ফিরে মোটরসাইকেলে রাখা ‘বোমাসদৃশ’ গ্রিন্ডিং মেশিন দেখতে পেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করেন। ঘটনাটি জানার পর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসেন। রাতভর পুলিশ ও সিআরটি সদস্যরা ঘটনাস্থল ঘিরে রাখেন। এক পর্যায়ে র‌্যাব-পুলিশের বোমা বিশেষজ্ঞ দল ঝুঁকি না নিয়ে সেনাবাহিনীর সহযোগিতা চায়।

পরদিন বিকেলে সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের বোমা ও বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ দল গ্রিন্ডিং মেশিনটি উদ্ধার করে। পরে বোমা ও বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ লেফটেন্যান্ট কর্নেল রাহাত সাংবাদিকদের জানান, ভুলবশত কিংবা কেউ আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য পুলিশ সদস্যের মোটরসাইকেলে যন্ত্রটি রেখে যেতে পারে। এতে মোটরসাইকেলে বোমাসদৃশ বস্তু ঘিরে আতঙ্কের ২১ ঘণ্টার অবসান হয়।

আরও পড়ুন:  ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের ঢাকা সফর ‘খুবই খুশির খবর’ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 7
    Shares