প্রচ্ছদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

কিরিন প্রসেসর উৎপাদন বন্ধ করলো হুয়াওয়ে

24
কিরিন প্রসেসর উৎপাদন বন্ধ করলো হুয়াওয়ে
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

হুয়াওয়ের ওপর মার্কিন বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ধাক্কার খবরটি জানালেন প্রতিষ্ঠানটির এক শীর্ষ কর্মকর্তা। প্রতিষ্ঠানটির প্রায় সব ফ্ল্যাগশিপ ফোনে ব্যবহৃত কিরিন প্রসেসর আর বানাতে পারবেনা চীনা এই মোবাইল ফোন জায়ান্ট।

আগামী মাস থেকেই ফ্ল্যাগশিপ কিরিন প্রসেসর বানানো বন্ধ করছে হুয়াওয়ে। বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের চাপের মুখে পড়েছে হুয়াওয়ে সরবরাহকরা। ফলে প্রতিষ্ঠানটির হাইসিলিকন চিপ বিভাগের পক্ষে এটি তৈরি অব্যাহত রাখা অসম্ভব হয়ে উঠেছে।

এ বিষয়ে প্রথমে জানিয়েছে আর্থিক ম্যাগাজিন কাইক্সিন। রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলছে, নিজেদের নতুন মেইট ৪০ হ্যান্ডসেট লঞ্চের অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ের কনজিউমার বিজনেস ইউনিট প্রধান রিচার্ড ইউ জানান, যুক্তরাষ্ট্রের চাপের কারণে সরবারহকদের বিপাকে পড়ার খবর। তিনি জানান, প্রধান প্রধান উপাদান সংগ্রহ করা সম্ভব হচ্ছে না।

“সেপ্টেম্বর ১৫ থেকে আমাদের ফ্ল্যাগশিপ কিরিন প্রসেসর তৈরি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। আমাদের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা চালিত চিপ আর প্রক্রিয়াজাত করা হবে না। এটি আমাদের জন্য অনেক বড় ধরনের একটি ক্ষতি।” – বলেছেন রিচার্ড ইউ।

আরও পড়ুন:  ওয়ালটন পণ্য কিনে মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগ বাড়লো

কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বাজে রকমের সম্পর্কের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। হুয়াওয়েকে চীনা সরকারের গুপ্তচর আখ্যা দিয়ে কালো তালিকাভুক্ত করে যুক্তরাষ্ট্র। এমনকি কানাডা থেকে হুয়াওয়ের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝুকেও দেশের মাটিতে এনে বিচারের সম্মুখীন করতে চাইছে ট্রাম্প প্রশাসন।

মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এক আদেশের মাধ্যমে হুয়াওয়েকে কালো তালিকাভূক্ত করে। এর ফলে বিশেষ অনুমতি ছাড়া কোনো মার্কিন প্রতিষ্ঠান বা প্রযুক্তি নির্মাতার পক্ষে হুয়াওয়ের সঙ্গে ব্যবসা করার পথ বন্ধ হয়ে যায়। পাশাপাশি যে কোনো মার্কিন মালিকানাধীন প্রযুক্তির ব্যবহারও হুয়াওয়ের জন্য নাগালের বাইরে চলে যায় ওই আদেশে।

নিজেদের চিপ নকশা করতে সিনোপসিস ইনকর্পোরেটের সাহায্য নিতো চীনা প্রতিষ্ঠানটি, নিজেদের উৎপাদনের কাজ-ও অনেক সময় তাইওয়ানের সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং কো (টিএসএমসি)-কে দেয় হুয়াওয়ে। সমস্যা হলো, টিএসএমসি হুয়াওয়ের সে কাজ করতে মার্কিন যন্ত্রাংশ ব্যবহার করে।

আরও পড়ুন:  ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির ফোন আনল স্যামসাং

কাইক্সিন প্রতিবেদনের ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি হুয়াওয়ে। টিএসএমসি, কেডেন্স ও সিনোপসিসও তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।

কিরিন প্রসেসর-সহ অনেক চিপ তৈরি করে থাকে হাইসিলিকন। হুয়াওয়ে স্মার্টফোন তৈরিতে ব্যবহৃত হয় চিপগুলো। মোবাইল ফোন নির্মানের ক্ষেত্রে মার্কিন চিপ নির্মাতা কোয়ালকমের চিপকে মানের দিক থেকে চ্যালেঞ্জ জানাবার মতো একমাত্র চীনা প্রতিষ্ঠান হাইসিলিকন।

“হুয়াওয়ে দশ বছরের বেশি হবে চিপ খাতে এসেছে, অনেক পিছিয়ে থাকা স্বত্ত্বেও, ধীরে ধীরে দূরত্ব কমিয়ে এনেছে এবং নেতৃস্থানীয় পর্যায়ে এসেছে। আমরা গবেষণা ও উন্নয়নের জন্য প্রচুর সম্পদ বিনিয়োগ করেছি, এবং কঠিন প্রক্রিয়া পার করেছি।” – বলেছেন রিচার্ড ইউ।

বাংলা ম্যাগাজিন টেক

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 7
    Shares