কৃষি, প্রাণী ও পরিবেশঢাকাশরীয়তপুর

সুন্দরবন থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে শরীয়তপুরে আসে কুমিরটি

আজ মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের (বনবিভাগ) পরিচালক মো. সানাউল্লাহ পাটোয়ারী জানান, শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে মাছের ঘেরে উদ্ধার হওয়া কুমিরটি সুন্দরবন থেকেই এসেছে। এ কুমিরকে সুন্দরবনের করমজল রেয়ারিং সেন্টারে অবমুক্ত করা হবে।

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় মাছের খামার থেকে কুমিরটি উদ্ধার করেন বন বিভাগের কর্মীরা।গতকাল রাতে উপজেলার আলওয়ালপুর ইউনিয়নের গাইমারা এলাকার একটি খামারে জেলেদের পাতা ফাঁদে ধরা পড়ে কুমিরটি।

তিনি বলেন, যেহেতু কুমিরটি নোনা জলের। আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে সুন্দরবন থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে চলে এসেছে। এছাড়া খাবারের কারণেও আসতে পারে। আমরা কুমিরটি খুলনার বনবিভাগের বয়রা রেস্কিউ সেন্টারে নিয়ে যাবো। সেখানে কুমিরটির চিকিৎসা দেবো। পরে সুন্দরবন করমজলে রেয়ারিং সেন্টারে কুমিরটি অবমুক্ত করবো।

সানাউল্লাহ পাটোয়ারী আরও বলেন, যেহেতু কোস্টার লাইনের সঙ্গে মেঘনা মোহনার নদীর সম্পৃক্ততা আছে, সে কারণেই কুমিরটি এখানে চলে আসছে। এসব কুমির সবসময় পানিতে থাকে না। কুমিরটি যেখানে আসছে সেখানে তো বনজঙ্গল নাই। তাই গর্ত করে থাকতে চেয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার বিকেলে গোসাইরহাট উপজেলার পাজালকান্দি এলাকার মো. খলিল কাজির মাছের ঘেরে একটি গর্ত দেখে স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। পরবর্তীতে ফাঁদ পেতে কুমিরটি ধরা হয়। খবর পেয়ে বনবিভাগের সদস্যরা কুমিরটি উদ্ধার করে।

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button