প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

মাত্র এক চামুচ জিরায় ১৫ কেজি ওজন কমান, জেনে নিন খাওয়ার নিয়মাবলী

185
মাত্র এক চামুচ জিরায় ১৫ কেজি ওজন কমান, জেনে নিন খাওয়ার নিয়মাবলী
পড়া যাবে: < 1 minute

জিরা একটি পরিচিত মসলার নাম, যা আমা’দের প্রতিদিনের রান্নায় ব্যবহার হয়। খাবার সুস্বাদু করা ছাড়াও জিরার আরও অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, জিরার এন্টিঅক্সিডেন্ট মানব দে’হের মেটাবলিজমের হার বাড়ায়। এটি আমা’দের দে’হের ক্যালরি বার্ন করতে সাহায্য করে।

পেটের মেদ কমাতে এটি খুবই কার্যকর। জিরা খাবার হজম প্রক্রিয়ায় কার্যকর ভূমিকা রাখে। পাকস্থলীতে গ্যাস জমতে বাধা দেয়। এটি শরীরে খারাপ চর্বি ও কলেস্টোরল তৈরিতে বাধা দেয়। জিরা শরীরের মেদ কমায় ও হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়।

এছাড়া জিরাকে জাদুকরি মসলাও বলা হয়। কারণ মাত্র এক চামুচ জিরা প্রতিদিন খেলে আপনার ওজন ১৫ কেজি কমে যেতে পারে! কী বিশ্বা’স হচ্ছে না!

আরও পড়ুন:  তিন দিনেই ট’নসি’লের ই’ন’ফেক’শন সারাবে লে’বু!

তাহলে আসুন জেনে নিই, জাদুকরি জিরার মিশ্রণ কীভাবে আপনার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবে।

জিরার মিশ্রণ তৈরির প্রস্তুত প্রণালী ও ব্যবহার মিশ্রণঃ (১) এক টেবিল চামুচ আস্ত জিরা এক গ্লাস পানিতে সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রাখু’ন। সকালে ওই পানি ফুটিয়ে নিন। পানি ছেঁকে এতে অর্ধেক লেবুর রস মেশান। এই পানি প্রতিদিন সকালে পান করুন একটানা ১৫ দিন। দ্রুত মেদ কমাতে এ মিশ্রণ অসাধারণ কাজ করে।

(২) এক চা চামুচ জিরার গু’ঁড়া ৫ গ্রাম টক দইয়ের স’ঙ্গে মিশিয়ে নিন। একটানা দুই স’প্তাহ প্রতিদিন এটি টকদইয়ের স’ঙ্গে মিশিয়ে খান।

(৩) এক গ্লাস পানিতে তিন গ্রাম জিরা পাউডার এবং কয়েক ফোঁটা মধু মিশিয়ে পান করুন।

আরও পড়ুন:  জেনে নিন দ’ই খেলে কি কি উ’প’কার হয়?

(৪) সমপরিমাণ আ’দা ও সি’দ্ধ গাজর কুচিয়ে নিন। আপনি চাইলে আরও দু এক পদের সি’দ্ধ সবজি দিতে পারেন। এবার এসব উপকরণ একস’ঙ্গে মিশিয়ে এর মধ্যে অল্প জিরার গু’ঁড়া, সামান্য লেবুর রস কুচানো আ’দা ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। রাতে অন্যকিছু ভারী খাবার বাদ দিয়ে এই সালাদ খান।

প্রতিদিন উল্লেখিত নিয়ম মেনে চললে দেখবেন দ্রুত আপনার ওজন স্বাভাবিকে এসেছে।

আর্টিকেলটি শেয়ার করুণ

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 8
    Shares