Bangla News

পাকিস্তানকে যে শর্তে ২ হাজার ৪৪৫ কোটি টাকা ঋণ দিলো সৌদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সৌদি আরব এবার শর্ত সাপেক্ষে পাকিস্তানকে ২৪ কোটি ডলার (বাংলাদেশের টাকায় প্রায় ২হাজার ৪৪৫ কোটি টাকা) ঋণ দিয়েছে। তবে শর্ত হল ঋণের অর্থ কেবল বিদ্যুৎ উৎপাদন, সরবরাহ ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন এবং মোহমান্দ বহুমুখী জলবিদ্যুৎ প্রকল্প খাতে ব্যয় করা যাবে।

ক রো না ম হা মা রি, ব্যাপক বন্যা ও রাজনৈতিক দামাডোলের কারণে দেশটিতে যখন অর্থনৈতিক সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে, তখন পাকিস্তানের জন্য এই ঋণ অনুমোদন দিল সৌদি কর্তৃফক্ষ।

জিও নিউজ জানিয়েছে, সৌদি আরবের সরকারি উন্নয়ন তহবিল সৌদি ফান্ড ফর ডেভেলপমেন্টের (এসএফডি) পক্ষ থেকে এই ঋণ দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার রাজধানী ইসলামাবাদে এসএফডির শীর্ষ নির্বাহী সুলতান আবদুল রহমান আল-মারশাদ এবং পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. কাজিম নিয়াজ চুক্তিতে নিজ নিজ পক্ষে সই করেন।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ খাইবার পাখতুনখোয়ার মোহমান্দ জেলার এই জলবিদ্যুৎ প্রকল্পটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই প্রকল্পের সঙ্গে খাইবার পাখতুনখোয়ার বিদ্যুৎ নিরাপত্তা, কৃষি ও দৈনন্দিন কাজে ব্যবহারযোগ্য পানির সহজপ্রাপ্যতা ও বন্যা প্রতিরোধের মতো ব্যাপারগুলো জড়িত।

এই প্রকল্পে অর্থ ও ঋণ সহায়তা দিচ্ছে সৌদি ফান্ড ফর ডেভেলপমেন্ট ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক আরও ৩টি প্রতিষ্ঠান। সেগুলো হল- জ্বালানি তেল উত্তোলন ও রপ্তানিকারী দেশগুলোর জোট ওপেক, ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক এবং কুয়েত ফান্ড।

এ সম্পর্কে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, পাকিস্তানের স্থিতিশীল উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে এই ঋণের অর্থ ব্যয় করা হবে। এই উন্নয়নের কেন্দ্রে থাকবে খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশ।

এতে বলা হয়, খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের ৮০ শতাংশ মানুষ এখনও গ্রামাঞ্চলে বাস করে। কাজ শেষ হলে এই প্রকল্পটি থেকে প্রতি বছর ৮০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাওয়া যাবে, যা খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের চাহিদা মেটানোর জন্য যথেষ্ট। এ ছাড়া ড্যামে যে ১৬ লাখ কিউবিক মিটার পানি সংরক্ষণ করা হবে— তা প্রদেশের কৃষির উন্নয়ন ও মানুষের দৈনন্দিন ব্যবহারের কাজে ব্যয় করা হবে।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button