প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

পূর্ব সুন্দরবনে হরিণ ধরা ফাঁদ ও ট্রলার সহ ৭ শিকারী আটক

20
পূর্ব সুন্দরবনে হরিণ ধরা ফাঁদ ও ট্রলার সহ ৭ শিকারী আটক
পড়া যাবে: < 1 minute

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ঃ

পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কচিখালী অভয়ারন্যের পক্ষিদিয়া চর এলাকা থেকে বনরক্ষীরা ৭ হরিণ শিকারীকে আটক করেছে। এ সময় তাদের ৪৫০টি হরিণধরা ফাঁদ ও একটি ট্রলার উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল (শনিবার) ভোর ৫টার দিকে জ্ঞানপাড়া টহল ফাঁড়ির বন রক্ষীরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আটক করে।

পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) মোঃ জয়নাল আবেদীন জানান, পাথরঘাটা উপজেলার জ্ঞানপাড়া এলাকার কুখ্যাত হরিণ শিকারী অর্ধশতাধিক মামলার আসামী মালেক গোমস্তার সহযোগী ইব্রাহীম বিশ্বাস তার লোকজন নিয়ে সুন্দরবনে প্রবেশ করেছে এমন গোপন সংবাদে জ্ঞানপাড়া টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সাদিক মাহমুদ বন রক্ষীদের নিয়ে বনে তল্লাশি অভিযান চালায়। এক পর্যায়ে ভোর ৫টার দিকে কচিখালীর পক্ষির চর এলাকা থেকে তাদের আটক করতে সক্ষম হয়। আটককৃতরা হচ্ছে, পাথরঘাটা উপজেলার দক্ষিণ চরদুয়ানী গ্রামের মুনসুর আলী বিশ্বাসের পুত্র ইব্রাহীম বিশ্বাস (৩৫), ইব্রাহিমের পুত্র মোঃ ইউনুচ (১৮), মোঃ ইসমাইলের পুত্র মোঃ মোস্তফা (৩০), পাথরঘাটার উপজেলার সায়রাবাদ গ্রামের আঃ হকের পুত্র শুকুর আলী (১৯), উত্তর কাঠালতলী গ্রামের আঃ হামিদের পুত্র ইলিয়াস (৩০), তালুকের চরদুয়ানী গ্রামের হাবিব মোল্লার পুত্র রাজু (২৫) ও মঠবাড়িয়া উপজেলার নলি গ্রামের আঃ ছালাম কাজির পুত্র জাকির কাজি (৩৫)। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার, দুইশত হাত ইলিশের জাল ও দুইশত হাত নাইলনের তৈরী হরিণ শিকারের ফাঁদসহ কয়েকটি দা ও ছুরি জব্দ করা হয়। আটককৃতদের বন আইনে মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। আটক হরিণ শিকারি ইব্রাহিম বিশ্বাস প্রায় দুই মাস আগে কটকা অভয়ারণ্য এলাকার ছাপড়াখালি এলাকা থেকে হরিণসহ বন বিভাগের হাতে আটক হয়েছিল বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন:  ফকিরহাটে চব্বিশ ঘন্টার ব্যবধানে ফের ধর্ষন: মামলা

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 8
    Shares