প্রচ্ছদ প্রবাস

আবুধাবি বিমানবন্দরে ১৩২ যাত্রী আটকা পড়েছেন

27
আবুধাবি বিমানবন্দরে ১৩২ যাত্রী আটকা পড়েছেন
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

 

 

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবি বিমান বন্দরে এয়ার আরেবিয়া ফ্লাইটের ৫১ জন ও বিমানের ৮১ জন সহ মোট ১৩২ জন বাংলাদেশী প্রবাসী যাত্রী আটকা পড়েছেন।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ বিমানের আঞ্চলিক পরিচালক নিধান চন্দ্র বড়ুয়া সাথে যোগাযোগ করে জানতে পারি ঢাকা থেকে মোট ২২৫ জন যাত্রী নিয়ে আবুধাবি আসে বিমানের একটি ফ্লাইট। ২২৫ জন থেকে ১৪৪ আবুধাবি প্রবেশের সুযোগ পেলেও ৮১জন যাত্রী এখনো আটকে আছেন। কেন আটকে আছেন, সে বিষয়ে তিনি পরিষ্কার করে কিছু বলতে পারেনি। তবে ধারণা করছেন আইসিএ এ্যাপ্রুভাল সংক্রান্ত সমস্যা হতে পারে। তাই আগত সকল যাত্রীকে আমিরাত সরকারের দেওয়া ওয়েবসাইটে ভিসা বৈধতা যাচাই বাছাই করে টিকেট নেওয়ার অনুরোধ করেন। তিনি আরো বলেন আটকে থাকার তালিকায় শুধু বাংলাদেশ নয় পাকিস্তান ও অন্য একটি দেশ রয়েছে। তিন দেশের মোট ৩৫০ জন যাত্রী আটকে আছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ দূতাবাসের দূতালয় প্রধান মুহাম্মদ জুবায়েদ হোসেনর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবু জাফরের নেতৃত্বে বাংলাদেশ দূতাবাস আবুধাবি, আরব আমিরাত দূতাবাস ঢাকা, আবুধাবি ইমিগ্রেশন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সহ যৌথভাবে বিভিন্ন পর্যায়ে এ বিষয় নিয়ে বৈঠক হচ্ছে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে সমস্যার সমাধান করে আটকে পড়া যাত্রীদের বের করতে পারবো। পাশাপাশি তিনি বিমান বন্দরে আটকে থাকা যাত্রীদের একটু দৈর্য্য ধরতে বলেন, এবং আমিরাত সরকারের পক্ষ থেকে যে সিদ্ধান্ত দেওয়া হয় সে সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ারও অনুরোধ করেন তিনি। কেন যাত্রীরা আটকে আছেন, সে বিষয়ে তিনিও পরিষ্কার করে কিছু বলতে পারেননি। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আবুধাবি সরকার জিরো টলারেন্স নীতিতে আছে, তারা চেষ্টা করছে করোনা মুক্ত শহর উপহার দিতে, তাই তাদের নিজস্ব কিছু সিদ্ধান্ত থাকতে পারে, যেটিই হোক না কেন, যেকোনো পরিস্থিতিতে প্রবাসীদের আমিরাতের আইনকানুনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।

আরও পড়ুন:  সৌদিতে গৃহকর্মী কুসুম এর মৃত্যু, বয়স জালিয়াতির দায় কার ?

আটকে থাকা একজন যাত্রী টেলিফোনে জানান আমরা ২২৫ জন যাত্রী এসেছিলাম, সবাই ইমিগ্রেশনের জন্য লাইনে ছিলাম, সব ঠিকঠাক মতো চলছিলো, ১৪৪ জন যাত্রী তথা যারা লাইনে আগে ছিলেন তারা বের হয়ে যাওয়ার পর জানতে পারি, ইমিগ্রেশনের সিস্টেম এর মধ্যে আইসিএ পারমিশন সাবমিট করার জন্য শো করছে কিন্তু যাত্রীদের কারো কাছে আইসিএ পারমিশন পেপার ছিলোনা যে কারণে ঐ মুহুর্তে সবাইকে আটকে দেওয়া হয়। যারা বের হয়েছেন তাদের কাছেও আইসিএ পারমিশন ছিলোনা বলে জানান তিনি। ঐ সময় তিনি আরো বলেন আমি এখানে শুনতে পাচ্ছি আজকে থেকে নাকি আবুধাবি গামী যাত্রীদের আবার আইসিএ এ্যাপ্রুভাল লাগবে। তবে তিনি শতভাগ নিশ্চিত করে বলতে পারছেনা কেন তারা আটকে আছেন। এসময় হতাশ কণ্ঠে তিনি বলেন দূতাবাসকে আমাদের জন্য কিছু করতে বলেন। আমরা কি পরিমাণ মানসিক যন্ত্রনাতে আছি বলে বুজাতে পারবো না। তিনি আরো জানান ঢাকা থেকে বাংলাদেশ সময় রাত ১১.১৫মিনিটে বিমান উড্ডয়নের কথা থাকলেও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তা উড্ডয়ন করেছে রাত ২,৩০ মিনিটে, তিনি বলেন হয়তো যথাসময়ে আসতে পারলে আমাদের এ সমস্যা হতোনা।

আরও পড়ুন:  প্রবাসীদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে মন্ত্রীর নির্দেশ

উল্লেখ্য গালফ নিউজ এবং কালিজ টাইমস পত্রিকার বরাত দিয়ে গত ১১ আগস্ট থেকে আইসিএ পারমিশন লাগবেনা জানিয়েছিলেন আবুধাবি বিমান সংস্থা, যে কারণে আবুধাবি আগত যাত্রীদের কারো কাছে আইসিএ পারমিশন পেপার ছিলোনা।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares