প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

টেকনিশিয়ান করোনায় আক্রান্ত, তাই হাসপাতালে এক্স রে বন্ধ

22
টেকনিশিয়ান করোনায় আক্রান্ত, তাই হাসপাতালে এক্স রে বন্ধ
পড়া যাবে: < 1 minute

টেকনিশিয়ান করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কারণে দুই সপ্তাহ ধরে বন্ধ হয়ে আছে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স রে মেশিন।এতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে রোগীদের।
এদিকে রোগী ও রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, হাসপাতালে এক্স রে করতে আসা রোগীদের হাসপাতালের মেশিনে ভালো হবে না বলে বাইরের বিভিন্ন ক্লিনিকে পাঠানো হয়। সেখানে অন্তত ৫ গুণ বেশি টাকা দিতে হয় তাদের।
এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বাইরে বিভিন্ন ক্লিনিকে এক্স রে করাতে পাঠানো হয়। সেখানে ৭০ টাকার এক্স রে করতে নেয় হচ্ছে ৩৫০-৪০০ টাকা। জানা যায়, প্রতিদিন এসব ক্লিনিকে ৬০ থেকে ৭০জন এক্স রে করাতে আসেন।
অপরদিকে কোটি টাকা মূল্যের নতুন এক্সরে মেশিন প্যাকেটজাত অবস্থায় অর্ধ যুগ ধরে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টোর রুমে জায়গা দখল করে পড়ে আছে। দীর্ঘদিনেও মেশিনটি জনস্বার্থে ব্যবহার করা হয়নি।
মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জেসমিন আরা জানান, ২০১৪ সালে যারা দায়িত্বে এসেছেন তারাও দেখেছেন এই ডিজিটাল এক্স রে মেশিন প্যাকেটে। এখনো লোকবলের অভাবে পড়ে রয়েছে। আর এক্স রে ম্যান শরিফ হাসান করোনায় আক্রান্ত, তাই গত ২ আগস্ট থেকে বন্ধ রয়েছে সচল এক্স রে মেশিনটিও। এতে রোগীদের একটু ভোগান্তি হচ্ছে।

আরও পড়ুন:  কুষ্টিয়ার কুমারখালী সরকারি কলেজে ভুয়া সনদে প্রভাষক পদে দীর্ঘ নয় বছর চাকরির , মামলার নির্দেশ

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares