প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

চলে গেলেন মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার শেখ ইউনুস আলী ইনু

21
চলে গেলেন মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার শেখ ইউনুস আলী ইনু
পড়া যাবে: 4 মিনিটে

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনায় মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমা-ার, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ ইউনুস আলী (৮০) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহে …………..  রাজেউন)। তিনি দীর্ঘ দিন অসুস্থ থেকে গতকাল রবিবার প্রথম প্রহরে রাত  ১২ টা  ৪০ মিনিটে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী এক ছেলে ৩ মেয়ে নাতি নাতনি ও আত্মীয় স্বজন সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমের নামাজে জানাযা বাদ জোহর পাবলা সবুজ সংঘ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযার আগে মরহুমকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বিউবলের মাধ্যমে গার্ড অব অনারের মাধ্যমে চিরবিদায় জানানো হয়। জানাযা শেষে মরহুমকে পাবলা কারিগর পাড়ায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এসকল অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ¦ তালুকদার আব্দুল খালেক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রিয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ কামরুজ্জামান টুকু, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খুলনা মহানগর বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি, পাইকগাছা উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা স. ম. বাবর আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ মিজানুর রহমান মিজান, মহানগর ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমা-ার অধ্যাপক আলমগীর কবীর ও সরদার মাহাবুবার রহমান, মুক্তিযোদ্ধা নুর ইসলাম বন্দ, বীরমুক্তিযোদ্ধা মাকসুদ আলম খাজা, বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ মোশাররফ হোসেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা ওবায়দুল্লাহ রন, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাবেক দপ্তর সম্পাদক ও সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, দৌলতপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ সৈয়দ আলী, খালিশপুর থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি একেএম সানাউল্লাহ নান্নু, আওয়ামী লীগ নেতা মোজাম্মেল হক হাওলাদার, শহীদুল ইসলাম বন্দ, মহানগর যুবলীগ আহবায়ক মো. সফিকুর রহমান পলাশ, মনিরুজ্জামান খান খোকন, ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহাম্মাদ আলী, কাউন্সিলর শামসুজ্জামান প্রিন্স, এম এ সেলিম, শাহিন জামাল পন, আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, শেখ আশরাফুজ্জামান খোকন, আলহাজ¦ শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ, আছিফুর রশিদ আছিফ, মফিজুর রহমান হিরু, শাহাদাত মিনা, মনিরুল ইসলাম তরফদার, মফিজুর রহমান জিবলু মোড়ল, আব্দুর রউফ মোড়ল, মাকসুদ হাসান পিকু, হারুন অর রশিদ, আবু জাফর হাওলাদার, জাফর ইকবাল মিলন, শেখ রেজাউল, শেখ অহিদুজ্জামান সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এবং নগরীর গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

আরও পড়ুন:  বাগেরহাটে ৭৬ জন সাংবাদিক পেল প্রধানমন্ত্রীর অর্থিক সহায়তার চেক

॥ ইউনুস আলী ইনু’র সংক্ষিপ্ত জীবন ইতিহাস ॥

শেখ ইউনুস আলী ইনু খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হিসেবে এ্যাড. মঞ্জুরুল ইমামের মৃত্যুর পরে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। । শেখ মোঃ ইউনুস আলীর ডাক নাম ইনু। খুলনা মহানগরীর দৌলতপুরের পাবলায় মরহুম শেখ এয়াকুব আলীর পুত্র তিনি। তিন মেয়ে ও এক ছেলের পিতা তিনি। তাঁর জন্ম, বেড়ে ওঠা ও লেখাপড়া খুলনা শহরেই। ১৯৬৫ সালে দৌলতপুর বিএল কলেজ থেকে তিনি স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৫৯ সালে মেট্রিক পাস করার পর থেকে তিনি ছাত্র রাজনীতির মাধ্যমে রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রবেশ করেন। ’৬৬-৬৭ সালে তিনি খুলনা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ’৬৮-৬৯ সালে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এ সময়ে তিনি ’৬২’র শিক্ষা কমিশন রিপোর্টের বিরুদ্ধে আন্দোলন, ’৬৬ সালের ৬ দফা আন্দোলন, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেতৃত্ব দান, ’৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থানে বিশেষ ভূমিকা পালন এবং ’৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোঃ মহসীনের নির্বাচনী প্রচারাভিযানের প্রধান এজেন্ট হিসেবে কাজ করেন। ’৭১ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষণের প্রেক্ষিতে ২৩ মার্চ পর্যন্ত অসহযোগ আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। স্বাধীনতার ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট হিসেবে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে ২৩ মার্চ সারাদেশের ন্যায় দৌলতপুরের বিএল কলেজ মাঠে বিশাল সমাবেশে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলন করেন।

১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ স্বাধীনতাযুদ্ধ শুরু হলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের নিবেদিত এক কর্মী হিসেবে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। বৃহত্তর খুলনা জেলার মুজিব বাহিনীর (বিএলএফ) ডেপুটি প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে ইউনুস আলী ইনু সামরিক শিক্ষা গ্রহণের জন্য লিডারশিপ ট্রেনিং হিসেবে প্রথম ব্যাচে ভারতে ট্রেনিং গ্রহণ করেন। প্রথমে তাঁরা উত্তর প্রদেশের দেরাদুন ও পরে চাক্রাতা নামক স্থানে জেনারেল ওভানের তত্ত্বাবধানে সামরিক শিক্ষা গ্রহণ করেন। ৪৫ দিনের ট্রেনিং গ্রহণ শেষে ১৩ আগস্ট মুজিব বাহিনী খুলনার প্রধান হিসেবে শেখ কামরুজ্জামান টুকু এবং ডেপুটি প্রধান হিসেবে ইউনুস আলী ইনু বেশ কিছু মুক্তিযোদ্ধাকে নিয়ে দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেন। বৃহত্তর খুলনার মুজিব বাহিনী সীমান্ত পেরিয়ে দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশের পর প্রথমে তালা ও পরে খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাটের বিভিন্ন অঞ্চলের থানা এলাকায় পর্যায়ক্রমে মুক্তিযোদ্ধাদের ঘাঁটি স্থাপন করেন। তালা থানার বালিয়াদাহ, বাওখোলা, পাটকেলঘাটা, ইসলামকাঠী, বদহাটা, কেয়ারগাতি, পাইকগাছা থানা সদর, বড়দল, বটিয়াঘাটা, বারোআড়িয়াসহ বিভিন্ন স্থানে রাজাকারদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ পরিচালনা করা হয়। সর্বশেষ খুলনায় সবচেয়ে বড় যুদ্ধ হয় ওই সময়ে ‘মিনি ক্যান্টনমেন্ট’ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া কপিলমুনিতে। ইউনুস আলী ইনু এ যুদ্ধে প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহণ ও পরিচালনা করেন। ৬ ডিসেম্বর ভোর থেকে ৯ ডিসেম্বর বিকেল পর্যন্ত প্রায় ৬০ ঘণ্টা যুদ্ধের পর কপিলমুনিতে ১৫৫ রাজাকার ও আলবদরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে প্রায় ২৫ হাজার লোকের উপস্থিতে গণআদালতের মাধ্যমে তাদের মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়। এরপর খুলনা শহর অভিমুখে যাত্রা করা হয় এবং ১৭ ডিসেম্বর খুলনা হানাদারমুক্ত করা হয়।

আরও পড়ুন:  স্বামীর মৃত্যুর ৫০ বছর পর বিধবা ভাতা পেলেন মাজু বিবি

খুলনা মুক্ত হওয়ার পর মুক্তিযোদ্ধারা খুলনার প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেন। ২৪ ডিসেম্বর মিত্র বাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান জগজিৎ সিং অরোরাকে খুলনা সার্কিট হাউজে সংবর্ধনা দেন ইউনুস আলী ইনু।এদিকে মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমা-ার বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ ইউনুস আলী ইনু’র মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ¦ তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারী।

॥ শেখ হেলাল উদ্দিন এমপি’র শোক ॥

মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমা-ার বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ ইউনুস আলী ইনু’র মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন, বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন।

॥ সেখ সালাহ্ উদ্দিন জুয়েল এমপি’র শোক ॥

মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমা-ার বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ ইউনুস আলী ইনু’র মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন, খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহ্ উদ্দিন জুয়েল।

॥ এস এম কামাল হোসেনের শোক ॥

মুজিব বাহিনীর ডেপুটি কমা-ার বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ ইউনুস আলী ইনু’র মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রিয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares