প্রচ্ছদ রাজধানী রেনু হ’ত্যার প্রধান আ’সামি হৃদয়কে গ্রে’ফতার

রেনু হ’ত্যার প্রধান আ’সামি হৃদয়কে গ্রে’ফতার

41
পড়া যাবে: 3 মিনিটে
advertisement

রাজধানীর বাড্ডায় ছে’লে ধ’রা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনু হ’ত্যার ঘটনায় হ’ত্যাকা’ণ্ডের প্রধান আ’সামি হৃদয়কে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) বিকেলে গোলাপ শাহ মাজারের সামনে থেকে মো. মাহবুব আলম নামক এক ব্যক্তি হৃদয়কে দেখতে স্থানীয়দের সহোযোগিতায় তাকে আ’টক করে পুলিশের নিটক সোপর্দ করে।

advertisement

গুলিস্তান পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা জানিয়েছে, মাহবুব আলম নামের এক ব্যক্তি হৃদয়কে দেখতে পেয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। তবে এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে দাবি করেছেন বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। তিনি বলেন আমি এ ধরণের কোন সংবাদ পাইনি এখনও।

এর আগে সোমবার (২২ জুলাই) রাতে গ্রেফতার কামাল ও আবুল কালাম আজাদ নামে দুইজনকে আ’টক করা হয়। সোমবার সকালে গ্রে’ফতার করা হয় বাচ্চু নামের একজনকে। রোববার অভিযান চালিয়ে পুলিশ বাপ্পী, শাহীন ও জাফর নামে তিনজনকে গ্’রেফতার করে।

আরও পড়ুন:  নি*হত রেনুর ভাইের লেখাটি পরে আপনি চোখে পানি ধরে রাখতে পারবেন না

গ’ণ পি’টুনির ঘটনায় উদ্ধার করা মোবাইলে ধারণকৃত একটি ফুটেজ দেখে সংশ্লিষ্টতা পাবার পর তাদেরকে গ্রে’ফতার করা হয়। জড়িত অন্যদেরকে শনাক্ত করে গ্রে’ফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার (২০ জুলাই) সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় মেয়েকে ভর্তি করানোর তথ্য জানতে স্থানীয় একটি স্কুলে যান মা তসলিমা বেগম রেনু (৪০)। এ সময় তাকে ছে’লে ধ’রা সন্দেহে প্রধান শিক্ষকের রুম থেকে টেনে বের করে গ’ণ পি’টুনিতে হ’ত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ৪০০-৫০০ জনকে আ’সামি করে একটি মা’মলা দা’য়ের করেন নি’হতের ভাগিনা নাসির উদ্দিন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

advertisement