প্রচ্ছদ আইন-আদালত

একদিকে অভিযান চালাচ্ছিলেন ম্যাজিস্ট্রেট,অপরদিকে ঘু’ষ নিচ্ছিলেন তার গাড়িচালক!

55
পড়া যাবে: < 1 minute

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভোক্তা অধিকারের অভিযান পরিচালনার সময় ঘু’ষ গ্রহণের অভিযোগে এক ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িচালককে কা’রাদ’ণ্ড দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আমিনুল ইসলাম। দ’ণ্ডপ্রা’প্ত মো. সাইদুর রহমান খান (৩৮) জেলা ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামিম হাসানের গাড়িচালক। তিনি গোপালগঞ্জ জেলার উলপুর গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, মাদারীপুর জেলার ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামিম হাসানের নেতৃত্বে আজ বৃহস্পতিবার উপজেলার মজিদবাড়ী (ভূরঘাটা) বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ওই ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িচালক মো. সাইদুর রহমান বিভিন্ন দোকানে গিয়ে ঘু*ষ নেন। বিষয়টি স্থানীয় ব্যবসায়ীদের নজরে আসলে তাকে আ*টক করে ইউএনওকে খবর দেন। পরে ইউএনও ওই গাড়িচালককে এক মাসের কা*রাদ*ণ্ড দেন।

আরও পড়ুন:  তিন বাংলাদেশীর হাত এবং পা কাটার নির্দেশ দিল সৌদি আরবের আদালত

ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক অতিরিক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামিম হাসান বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘আমার গাড়িচালক সাইদুর রহমানকে দোকান থেকে উ*ৎকোচ নেওয়ার অভিযোগে কা*রাদ*ণ্ড দেওয়া হয়েছে।’

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘অতিরিক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামিম হাসানের গাড়িচালক সাইদুর রহমানকে দোকানিদের কাছ থেকে উ*ৎকোচ গ্রহণের অভিযোগে এক মাসের কা*রাদ*ণ্ড দেওয়া হয়েছে।’

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি