প্রচ্ছদ আইন-আদালত

ডেঙ্গু পরীক্ষায় ইবনে সিনার প্র*তারণা

49
পড়া যাবে: < 1 minute

ডেঙ্গু সনাক্তকরণ রক্ত পরীক্ষা নিয়ে প্র*তারণার অভি*যোগে ধানমন্ডি সাতমসজিদ রোডের ইবনে সিনা ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড ইমেজিং সেন্টারের কনসালটেন্ট প্রফেসর (অব.) কর্নেল মো. মনিরুজ্জামানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মা*মলা করেছেন এক ভু*ক্তভু*গি আইনজীবী।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা সি*এমএম আ*দালতে এ মা*মলাটি করেন আইনজীবী মো. রমজান আলী সরকার ওরফে রানা সরদার। ঢাকা মহানগর হা*কিম মো. দিদার হোসাইন বা*দীর জ*বানব*ন্দি গ্রহণ শেষে পরে আদেশ দিবেন বলে জানিয়েছেন।

মা*মলার অপর আ*সামিরা বলেন-ইবনে সিনা ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড ইমেজিং সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ইবনেসিনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ইবনে সিনা হাসপাতালের চেয়ারম্যান।

আরও পড়ুন:  নি*র্যাতন সহ্য করতে না পেরে পা*লাতে গিয়ে ১৩ তলা বাথরুমের ভেন্টিলেটর থেকে প*ড়ল গৃহকর্মী

মা*মলার অভিযোগে বলা হয়, বাদী গত ২৫ জুলাই প্রচন্ড জ্বর নিয়ে ধানমন্ডি সাতমসজিদ রোডের ইবনে সিনা ডায়াগনস্টিক এন্ড ইমেজিং সেন্টারে ডেঙ্গু সনাক্তকরণ রক্তের ডেঙ্গু এনএসআই এজি ও সিবিসি পরীক্ষা করতে দেন। পরদিন ২৬ জুলাই রিপোর্ট সংগ্রহ করে দেখতে পান রক্তের প্লাটিলেট লেভেল ৭ লাখ ৮৪ হাজার সিএমএম। প্লাটিলেট লেভেল স্বাভাবিক থেকে অনেক বেশি হওয়ায় বা*দী ভেঙ্গে পড়েন।

পরে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর একইদিন ধানমন্ডিস্থ বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রক্তের সিবিসি পরীক্ষা করেন। সেখানকার রিপোর্টে রক্তের প্লাটিলেট লেভেল ২ লাখ আসে যা ছিল স্বাভাবিক লেভেল। মা*মলায় বলা হয় ইবনে সিনার প্*রতার*ণামূলক ভুল রিপোর্টের ভিত্তিতে বাদী ওষুধ সেবন করলে শারীরিক, মানাষিক ও আর্থিকভাবে ক্ষ*তিগ্রস্ত হতেন এবং জী*বননা*শেরও সম্ভাবনা ছিল।

আরও পড়ুন:  ঢাকা ৯ ও ১০ আসনে মনোনয়ন

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি