প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

না’রকে’ল নাকি আ’পেলের ভি’নে’গা’র, কোনটি ও’জ’ন ক’মা’য়?

16
না’রকে’ল নাকি আ’পেলের ভি’নে’গা’র, কোনটি ও’জ’ন ক’মা’য়?
পড়া যাবে: < 1 minute

বর্তমানে স্বাস্থ্য সচেতনদের মধ্যে আপেল সিডার একটি জনপ্রিয় পানীয়। যা দ্রুত ওজন কমানোর পাশাপাশি চুল এবং

ত্বকের জন্য খুবই কার্যকরী। তেমনি নারকেল ভিনেগারও বেশ উপকারী। এটি আপেল সিডার ভিনেগারের তুলনায় বেশি উপকারী বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

নারকেল ভিনেগার আপনার ওজন কমানোর পাশাপাশি পেটের সমস্যা দূর করে। এতে রয়েছে প্রোবায়োটিক যা আপনার

গাঁজন প্রক্রিয়া সহজ করে। অন্ত্রের জন্যও ভালো এই ভিনেগার। গবেষণা অনুসারে, নারকেল ভিনেগারে প্রচুর পরিমাণে এসিটিক অ্যাসিড থাকে। যা ডায়াবেটিসে আ’ক্রা’ন্ত ব্যক্তিদের জন্য খুবই উপকারী। এই পানীয়টিতে কিছু অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যও রয়েছে। যা স্থূলত্বের বিরু’দ্ধে লড়াই করতে এবং ওজন পরিচালনা করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন:  স’ন্তা’ন নি’তে চাই’লে, কতবার মে’লামে’শা জ’রু’রি: ডা. কা’জী ফয়ে’জা

স্বাস্থ্যকর পানীয় বলতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্যযুক্ত পানীয়কে বোঝায়। এই ভিনেগার সালাদে মিশিয়ে খেতে পারবেন। আবার আপেল সিডার ভিনেগারের মতো পানি এবং মধুতে মিশিয়েও খাওয়া যায়।

এই ভিনেগারের স্বাদ অনেকটা নারকেলের পানির মতোই মিষ্টি হয়ে থাকে। এটি আপেল সিডার থেকে সহজে হজম হয়। এটি খাবারে মেশালে খাবারের স্বাদ বৃ’দ্ধি পায়। এর আলাদা কোনো গন্ধ নেই। তাই পার্থক্য বের করা কঠিন।

তবে নারকেল ভিনেগারে আপেল সিডারের মতোই উচ্চ মাত্রায় অ্যামিনো অ্যাসিড, এনজাইম এবং প্রোবায়োটিক রয়েছে। অ্যাপল সিডার ভিনেগার এবং নারকেল ভিনেগার উভয়ই সমান স্বাস্থ্যকর। তাই যেকোনো টাই বিকল্পভাবে ব্যবহার করা যায়।

আরও পড়ুন:  নিয়মিত খেজুর খেলে যত উপকার

সতর্কতা: নারকেলের ভিনেগার আপনি নিয়মিত ডায়েট চার্টে রাখতে পারেন। তবে এটি র’ক্তচাপের মাত্রা হ্রাস করতে পারে। যারা নিম্ন র’ক্তচাপের ওষুধ সেবন করছেন তারা এই ভিনেগার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। সূত্র: টাইমসঅবইন্ডিয়া

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 5
    Shares