প্রচ্ছদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মনের ভাবনা নিজেই টাইপ করবে ফেসবুকের ডিভাইস

11
পড়া যাবে: 3 মিনিটে

একটা কথা মনে মনে ভাবছেন আর সেই কথা অটোমেটিক লিখে দিচ্ছে একটি যন্ত্র। হাত দিয়ে আর টাইপ করতে হবে না। বিস্ময়কর এমন প্রযুক্তিই বাস্তবে রূপ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্রতিষ্ঠান ফেসবুক। কয়েক বছরের মধ্যেই এমন ডিভাইস বাজারে আনতে চায় প্রতিষ্ঠানটি।

২০১৭ সালের এফ৮ ডেভেলপার সম্মেলনেই এ ব্যাপারে আভাস দিয়েছিলো ফেসবুক। এরপর প্রায় আড়াই বছর চুপচাপ থাকার পর আইডিয়াটি আবার সামনে নিয়ে এলো তারা।

ওই সম্মেলনে ফেসবুক জানিয়েছিলো, তারা ব্রেইন-কম্পিউটার ইন্টারফেস (বিসিআই) প্রোগ্রাম নিয়ে কাজ করছে। যে প্রোগ্রাম মানুষের ব্রেনের ভাবনা পড়ে নিজে নিজেই টাইপ করতে পারবে।

প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেট অবশ্য এই ব্যাপারে বেশ বিস্তারিত জানিয়েছে। সিনেটের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ডিভাইসটি তৈরি করতে ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে ফেসবুক। ইতোমধ্যে গবেষণার অংশ হিসেবে তিনজন মানুষের ব্রেনে অস্থায়ী ইলেকট্রোড ইনস্টল করা হয়েছে। ওই তিনজই মৃগী রোগী বলে জানা গেছে।

ডিভাইসটির ব্যাপারে বেশ ভালোই এগিয়েছে গবেষকরা। তারা জানিয়েছেন যে, যে তিনজন মানুষের ব্রেনে ইলেকট্রোড ইনস্টল করা হয়েছে ৬১ শতাংশ ক্ষেত্রে তাদের মুখের কথা শেষ করার আগেই সেটি বুঝতে পেরেছে আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ভিত্তিক সিস্টেম। ধীরে ধীরে এই সফলতার হার বাড়ছে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। গত কয়েক মাসে সফলতার হার ৭৫ শতাংশে উঠেছে বলেও প্রকাশ করেছে সিনেট।

ডিভাইসটি প্রতি মিনিটে ১০০ শব্দ লিখতে পারবে। এটি গায়ে দিয়ে ঘুরেও বেড়ানো যাবে। হাঁটার সময়ই ব্রেন যা চিন্তা করবে তা লিখে ফেলবে এটি! আর লিখতে গিয়ে ভুলের মাত্রা হবে প্রাথমিকভাবে মাত্র ১৭ শতাংশ। এবার শুধু অপেক্ষা ফেসবুকের এই ডিভাইসের জন্য।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

Loading...

আপনার মতামত লিখুন :

Loading Facebook Comments ...