প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

প্রাকৃতিক ভাবে নিজেকে সুরভিত রাখার সাহজ উপায় শিখে নিন

21
প্রাকৃতিক ভাবে নিজেকে সুরভিত রাখার সাহজ উপায় শিখে নিন
পড়া যাবে: 3 মিনিটে

রোদে ঘেমে একাকার! সেই থেকে তৈরি হয় গায়ের দুর্গন্ধ। না চাইলেও সম্মুখীন ’হতে হয় বিব্রতকর পরিস্থিতির। বাজারে সুগন্ধির অভাব নেই। তবে সেগু’লো রাসায়নিকযুক্ত। ঘ্রাণও দীর্ঘস্থায়ী হয় না। সারা দিন সুরভিত থাকতে প্রাকৃতিক টোটকা ’হতে পারে আদর্শ। আয়ুর্বেদিক রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা ও আফরিন মৌসুমি জানালেন হাতের নাগালেই পাওয়া যায় এমন সব উপাদান দিয়েই প্রাকৃতিক উপায়ে কীভাবে সুরভিত থাকা যায়।

নিমপাতা: এই আবহাওয়ায় যেহেতু খুব ঘাম হচ্ছে সেহেতু এমন কিছু দরকার যাতে ঘাম হবে না এবং সতেজও থাকা যাব’ে। সে ক্ষেত্রে নিমপাতা এক অনন্য প্রাকৃতিক উপাদান। এক লিটার পানিতে ৩ মুঠ নিমপাতা ১০-২০ মিনিট জ্বা’ল দিন। নিমপাতার সবুজ নি’র্যাসটি বেরিয়ে এলে তা গোসলের পানির স’ঙ্গে মিশিয়ে গোসল করে নিন।

অডিকোলন: এক বালতি পানিতে ৭-৮ ফোঁটা অডিকোলন মিশিয়েও গোসল করতে পারেন। সুরভিত ও সতেজ থাকার জন্য এটা একধরনের প্রাকৃতিক টোনার। ওষুধের দোকানগু’লোতে অডিকোলন পেতে পারেন।

গ্লিসারিন ও গন্ধ’রাজ লেবু: এই মিশ্রণটি গোসলের পর ব্যবহার করতে হবে। এক টেবিল চামচ গ্লিসারিনের স’ঙ্গে ৩ টেবিল চামচ পানি ও ১ চা-চামচ গন্ধ’রাজ লেবুর রস খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। শরীরের যেসব জায়গায় ঘাম হয় সেসব জায়গায় লাগিয়ে রাখলে সারা দিন সুরভিত থাকা যায়।

মুলতানি মাটি ও চন্দন: বাইরে যাওয়ার সময় মুলতানি মাটির স’ঙ্গে চন্দনের গু’ঁড়া মিশিয়ে পাফের সাহায্যে ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বক সারা বেলা থাকবে স্নিগ্ধ ও সতেজ। সৌরভও হয় দীর্ঘস্থায়ী।

ল্যাভেন্ডার ও স্যান্ডেল অ্যাসেন্সিয়াল অয়েল: শ্যাম্পুর স’ঙ্গে ল্যাভেন্ডার ও স্যান্ডেল অ্যাসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে চুল ধুয়ে নিলে সারা দিন চুলে বেশ ভালো একটা সুঘ্রাণ আসবে।

আরও পড়ুন:  অতিসাধারন এই ১০টি ল’ক্ষ’ণ দেখলে বুঝবেন আপনার শ’রী’র বি*ষে ভরে উঠেছে, আজই সচেতন হন।

আমলকী, মেথি ও শিকাকাই: এই তিনটি উপকরণ এক টেবিল চামচ করে নিয়ে একস’ঙ্গে এক কাপ পানিতে সারা রাত ভিজিয়ে রাখু’ন। এরপর সকালে এগু’লোর পেস্ট তৈরি করে নিন। এরপর এই পেস্টটি চুলে লাগিয়ে কিছুক্ষণ অ’পেক্ষা করে শ্যাম্পু করে নিন। এতে করেও চুল প্রাকৃতিকভাবে সুরভিত থাকবে।

বেলি ও গাঁদা ফুল: এখন বেলি ফুলের সময়! বেলি ফুল খুব ভালোভাবে পেস্ট করে তাতে চালের গু’ঁড়া, স্যান্ডেল অ্যাসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে শরীরে লাগিয়ে গোসল করার সময় ঘষে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে শরীর থেকে খুব সুন্দর একটা সুঘ্রাণ বইতে থাকবে। স’প্তাহে একদিন এই প্যাকটি লাগাতে পারেন। যখন গাঁদা ফুলের সময় হয়, তখন গাঁদা ফুল দিয়ে এই প্যাকটি বানিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

বরিক পাউডার ও মুলতানি মাটি: বিশেষ করে যাঁরা বন্ধ ধরনের জুতা পরেন তাঁদের জন্য এটি বেশ কার্যকর। প্রথমে পা ভালো করে ধুয়ে শুকনোভাবে মুছে নিতে হবে। এরপর বরিক পাউডার ও মুলতানি মাটির মিশ্রণ পায়ে লাগিয়ে জুতা বা মোজা পরে নিলে পায়ে আর দুর্গন্ধ হবে না।

দুধ ও মধু: গু’ঁড়ো দুধের স’ঙ্গে মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে তা গায়ে লাগিয়ে গোসল করার সময় প্যাকটি ঘষে তুলে ফেলুন। দুধের প্রাকৃতিক যে ঘ্রাণ রয়েছে তা আপনার শরীরকে সুরভিত রাখার স’ঙ্গে স’ঙ্গে সতেজতাও এনে দেবে। এ ছাড়াও এই প্যাকটি রোদে পোড়াভাব এবং যেকোনো ধরনের দাগও দূর করবে।

চায়ের লিকার: চায়ের লিকার জ্বা’ল দিয়ে এক কাপ পরিমাণ করে নিন। দুই মগ পানিতে মিশিয়ে সেই পানিটা একেবারে শেষে চুলে দিতে হবে। এতে করে চুল যে শুধু সুরভিতই থাকবে তা নয়, বরং চুলের উজ্জ্বলতা বাড়াবে ও আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করবে। এখন আবহাওয়ার কারণে মাথার ত্বক ঘেমে যায়। চুল থেকে লবণ বের হয় এবং চুল রুক্ষ হয়ে যায়। ঝরঝরে ভাব আনতে তাই চায়ের লিকার ব্যবহার করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন:  দী’র্ঘ মে’য়া’দে ফু’সফু’স বি’কল করে দিচ্ছে ক’রো’নাভা’ইরা’স?

মেথির পানি: মেথি ভিজিয়ে রেখে সেই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেললেও চুল বেশ সুবাসিত হয়। এ ছাড়া চুলকে ঝরঝরে ও উজ্জ্বল রাখে এই মেথির পানি।

সন্ধ্যা ও স্টার: আগের দিনে যখন সুগন্ধি ছিল না, তখন বিয়ের সময় কনেকে হলুদ ও সন্ধ্যা বেটে গায়ে দেওয়া ’হতো। এই ঔষধি বা গাছড়ার দারুণ একটি ঘ্রাণ রয়েছে। এ রকম আরেকটি সুগন্ধিযুক্ত গাছড়া হলো স্টার যা মসলা হিসেবেও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এগু’লো পানিতে জ্বা’ল দিয়ে আধা ঘণ্টা ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। নি’র্যাস বেরিয়ে এলে তা গোসলের পানিতে মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

লেবুপাতা ও লেমন গ্রাস: এই পাতাগু’লোর নি’র্যাস তৈরি করে তা গোসলের পানিতে মিশিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে করে শরীরে সতেজতা ও সুঘ্রাণ আসে এবং ফুসকুড়ি, ব্রণ, ফা’ঙ্গাল ইনফেকশনও দূর করে। লেমন গ্রাসে এক ধরনের অ্যাসেনশিয়াল অয়েল রয়েছে যা সব ধরনের ত্বকের জন্য খুবই ভালো।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 11
    Shares