প্রচ্ছদ Bangla News

পকে'টে কন'ডম, ‘সৌদি আইনে’ প্রবাসীকে হ'ত্যা করল স্ত্রী'-সন্তানেরা

157
পকে'টে কন'ডম, ‘সৌদি আইনে’ প্রবাসীকে হ'ত্যা করল স্ত্রী'-সন্তানেরা
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় সৌদি প্রবাসী জামাল হোসেনকে হ’ত্যার দায় স্বীকার করেছে তার স্ত্রী’, ছে’লে ও মে’য়ে। পারিবারিক কলহের জের ধরে এ ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবতাবুজ্জান ও কাউছার আলমের পৃথক দুটি আ’দালতে হ’ত্যার দায় স্বীকার করে নি’হত প্রবাসী জামাল হোসেনের স্ত্রী’ শারমিন আক্তার ডলি, ছে’লে তানভীর হাছান ডালিম ও মে’য়ে সামিয়া বেগম এমন জবানব’ন্দি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থা’নার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই সৌদি প্রবাসী জামাল হোসেনকে পর’কী’য়ার স’ন্দেহ করে আসছিলো তার স্ত্রী’।

বিষয়টি নিয়ে তিনি ছে’লেমে’য়ের সঙ্গে পরাম’র্শও করতেন। গত বুধবার হ’ত্যাকা’ণ্ডের রাতে জামাল হোসেন বাইরে থেকে ফিরে গোসল করেন। এতে স্ত্রী’ ও সন্তানদের মনে স’ন্দেহ দেখা দেয়।

তিনি বলেন, জামাল হোসেন যখন ঘুমিয়ে পড়েন তখন তার আসবাবপত্র তল্লা’শি করে কিছু কন’ডম ও যৌ’ন উত্তেজক ট্যাবলেট খুঁজে পায় তারা। এ নিয়ে তাদের মধ্যে স’ন্দেহ আরো বেড়ে যায়। এরপর স্ত্রী’ শারমিন আক্তার ডলি ছে’লে ও মে’য়েকে নিয়ে পরাম’র্শ করেন সৌদি আরবের আইনে পর’কী’য়ার অ’প’রাধে মৃ’ত্যুদ’ণ্ড দেয়া হয়। তাই সৌদির আইন কার্যকর করতে জামাল হোসেনকেও মৃ’ত্যুদ’ণ্ড দিতে হবে।

আরও পড়ুন:  সাবেক মন্ত্রী সাহারার মৃত্যুতে এমপি এনামুল হকের শোক

তিনি আরো বলেন, বিষয়টি নিয়ে তাদের মা-মে’য়ে ও ছে’লের মধ্যে পর্যায়ক্রমে কথাবার্তার এক পর্যায়ে সিদ্ধান্ত হয় জামাল হোসেনকে তাদের পারিবারিক আ’দালতে সৌদির আইনে মৃ’ত্যুদ’ণ্ড দেবেন। সিদ্ধান্ত মতে গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় জামাল হোসেনের মা’থায় প্রথমে স্ত্রী’ শারমিন আক্তার ডলি হাতুড়ি দিয়ে কয়েকটি আ’ঘাত করেন। এরপর একই স্থানে ছে’লে তানভীর হাছান ডালিম ও মে’য়ে সামিয়া বেগমও একাধিকবার হাতুড়ি দিয়ে আ’ঘাত করেন।

ওসি বলেন, জামাল হোসেন নিথর হয়ে পড়লে স্ত্রী’ ডলি দুই পায়ে ধরেন ও ছে’লেমে’য়ে দুই হাতে ধরে টয়লেটে নিয়ে যায়। সেখানে ডলির নির্দেশে তার ছে’লে ডালিম টয়লেটের কমোড ভেঙে ফেলেন। পরে আশপাশের লোকজনদের ডেকে এনে বলেন জামাল হোসেন স্ট্রোক করে মা’রা গেছেন।

তিনি বলেন, হ’ত্যার পর র’ক্তাক্ত অবস্থায় জামাল হোসেনের ম’রদেহ দাফনের চেষ্টার সময় অ’ভিযান চালিয়ে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার নিজ বাড়ি থেকে নি’হতের স্ত্রী’ ও ছে’লেমে’য়েকে আ’ট’ক করি। আর ম’রদেহটি ময়নাত’দন্তের জন্য জেনারেল হাসপাতাল ম’র্গে প্রেরণ করেছি। পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জামাল হোসেনকে হ’ত্যার দায় স্বীকার করে তিনজনই। এরপর আ’দালতে তারা দায় স্বীকার করে জবানব’ন্দি দিয়েছে।

আরও পড়ুন:  বাড়ি থেকে পালিয়ে কোর্টে গিয়ে বিয়ে, নববধূর র'হস্যজনক মৃ'ত্যু

এদিকে এলাকাবাসী জানান, দেড় বছর আগে জামাল হোসেন সৌদিআরব থেকে দেশে আসেন। এরপর আর বিদেশে যাননি। বুধবার র’ক্তাক্ত অবস্থায় জামাল হোসেনকে দ্রুত দাফনের চেষ্টা করে তার স্ত্রী’ শারমীন আক্তার ও ছে’লে-মে’য়ে। বিষয়টি স’ন্দেহ হলে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে থা’নায় খবর দেয়া হয়। এরপর পু’লিশ এসে ম’রদেহ উ’দ্ধার করে নিয়ে যায়।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 58
    Shares