প্রচ্ছদ রাজনীতি অন্যান্য দল

ভিন্ন পথযাত্রায় আমাদের নেতা ছিলেন কাজী জাফর : মেনন

20
ভিন্ন পথযাত্রায় আমাদের নেতা ছিলেন কাজী জাফর : মেনন
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

সাবেক প্রধানমন্ত্রী কাজী জাফর আহমেদের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের কথা বলতে গিয়ে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, আমাদের সম্পর্কটা এতই অবিচ্ছেদ্য ছিল, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় যখন আমরা ভারতে আশ্রয় নিয়ে এই লড়াইয়ের ক্ষেত্রে সংগঠিত করার চেষ্টা করছি, সে সময়ে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাতা কমরেড মুজাফফর আহমদের সঙ্গে আমার দেখা হওয়ার সুযোগ হয়েছিল। কমরেড মুজাফফর আহমদ আমাকে দেখে বললেন, জাফর-মেনন আপনারা এসেছেন? আমি বললাম, জি না, আমি মেনন, কাজী জাফর আরেক জন। উনি বললেন, ওহ! জাফর-মেনন একটি নাম।

কাজী জাফরের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার (২৯ আগস্ট) ভার্চুয়াল এক আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

মেনন বলেন, ‘জাফর ভাইয়ের সঙ্গে আমার যে সম্পর্ক এটা দীর্ঘকালের, একটা অবিচ্ছেদ্য সম্পর্ক। ছাত্র আন্দোলন থেকে শুরু করে শ্রমিক আন্দোলন, বাংলাদেশের মুক্তির আন্দোলন, স্বাধীনতা সংগ্রামের আন্দোলন-সব ক্ষেত্রে আমরা প্রায় একত্রে পথ চলেছি। বলতে পারেন, জাফর ভাই এককথায় আমাদের নেতা ছিলেন।’

আরও পড়ুন:  ছাত্রদলের বিভাগীয় সাংগঠনিক টিমগুলোকে পুনর্গঠন

তিনি বলেন, ‘আমরা একসঙ্গে পথ চলেছি। ছাত্র আন্দোলন বিশেষ করে শিক্ষা আন্দোলনে জাফর ভাইয়ের যে অতুলনীয় নেতৃত্ব, সেই নেতৃত্ব এটা সবাই স্মরণ রাখবে। এই শিক্ষা আন্দোলনে প্রতিটি ঘটনায় তার বক্তৃতা মানুষকে এতই মোহাবিষ্ট করত, এমন উদ্বেলিত করত, যে রকম আর দেখি নাই।’

‘আমার একটি কথাই মনে আছে, ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৬২ সালে শিক্ষা আন্দোলনে যখন গুলি হলো, তখন ওয়াজি উল্লাহ, মামুন মুস্তফা মারা গেলেন। সেখানে সেই মেডিকেলের ভেতরে লাশের সামনে দাঁড়িয়ে যে বক্তৃতা করেছিলেন, আমার মনে আছে, ওখানে দাঁড়ানো সমস্ত মানুষ কেঁদে দিয়েছিল। এতদূর তার বক্তৃতার প্রভাব ছিল।’

কাজী জাফর প্রসঙ্গে রাশেদ খান মেনন আরও বলেন, ‘ভিন্ন পথযাত্রায় আমরা স্বাধীনতার সূর্য দেখেছিলাম। সেই পথযাত্রায় আমাদের নেতা ছিলেন কাজী জাফর আহমেদ যাকে আমরা চিরকাল স্মরণ করি। তার জীবনে যেমন তার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছিলাম এবং মৃত্যুর দিনেও যদিও রাজনৈতিক একেবারেই বিপরীত মেরুতে দাঁড়িয়েছিলাম আমরা, আকস্মিক মৃত্যর দিনেও আমার সৌভাগ্য হয়েছিল তাকে শেষবিদায় জানাতে পেরেছিলাম।’

আরও পড়ুন:  বন্ধের সুপারিশ সত্ত্বেও ঈদে গণপরিবহন চলাচলের সুযোগ দিল সরকার

কাজী জাফর এদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে একজন অন্যতম সংগঠক হিসেবে, মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে এবং এদেশের শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের সংগঠনের নেতা হিসেবে তিনি আমাদের মাঝে অম্লান থাকবেন এবং আমাদের স্মৃতিতে চিরকাল সমুজ্জ্বল থাকবেন বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি।

জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) সভাপতি মোস্তফা জামাল হায়দারের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল সভায় শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক মুহাম্মদ ইউনূস, প্রবাসী শিক্ষাবিদ আতিকুর রহমান সালু, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, জাগপার একাংশের প্রধান খোন্দকার লুতফুর রহমান, জাতীয় পার্টির আহসান হাবিব লিংকন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 19
    Shares