প্রচ্ছদ অপরাধ

ধ*র্ষণ চে*ষ্টার মা*মলা তুলে না নেয়ায় মা-বাবাকে বেঁধে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে গ*ণ ধ*র্ষণ

68
লাল্টু
পড়া যাবে: 4 মিনিটে

ধ*র্ষণ চে*ষ্টার মামলা তুলে না নেয়ায় চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রীকে দ*লবদ্ধ ধ*র্ষণে*র অভিযোগ পাওয়া গেছে । শনিবার রাতে ওই কিশোরীর বাড়িতে ঢুকে মা-বাবাকে মা*রধ*র করে বেঁ*ধে রেখে মেয়েকে তুলে নিয়ে ধ*র্ষণ করা হয়। রোববার দুপুরে ওই কিশোরীকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নি*র্যাতি*ত মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা আলমডাঙ্গা থানায় একটি ধ*র্ষণ মা*মলা দা*য়ের করেন। পরে ঘটনার সাথে জা*ড়িত থাকার অ*ভিযোগে রোববার দুপুরে লাল্টু নামে একজনকে আ*টক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, আলমডাঙ্গা উপজেলার নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকার হতদরিদ্র পরিবারের মেয়েকে একই এলাকার জয়নালের ছেলে লাল্টু (৩৫), মৃ*ত সভা ভোরামীর ছেলে শরীফুল (৪০) ও মিলনের ছেলে রাজু (৩০) প্রায় উ*ত্তক্ত করে আসছিল।

এ ঘটনায় ওই মেয়ের মা চুয়াডাঙ্গা আদালতে মাসখানেক আগে শ্লী*লতাহা*নীর একটি মা*মলা করেছিল। ওই মা*মলার জে*র ধরেই শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে আলমডাঙ্গার নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকায় ওই হতদরিদ্র পরিবারের বাড়িতে হা*মলা করে লাল্টু, শরিফুল ও রাজু।

এসময় নি*র্যাতি*তার বাবা মাকে মা*রধ*র করে মেয়েকে পাশের বাঁশবাগানে জো*ড় করে তুলে নিয়ে পা*লাক্র*মে ধ*র্ষণ করে তারা। পরে এই ঘটনা পুলিশকে জানালে প্রা*ননা*শের*ও হু*মকি দেয় অ*ভিযু*ক্তরা। রোববার দুপুরে পুলিশ ভি*কটি*মের বাড়ি থেকে অ*ভিযোগ পেয়ে নি*র্যার্*তিতা মেয়েকে উদ্ধার করে আলমডাঙ্গা থা*নায় নিয়ে আসে।

পরে গো*পন তথ্যের ভিত্তিতে নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকায় অ*ভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিনজনের মধ্যে লাল্টুকে আ*টক করে পুলিশ। অন্য দুই আসামী পুলিশের উপস্থিতি টে*র পেয়ে পা*লিয়ে যায়।

ওই মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা জানান, রোববার ছিল ওই মা*মলা*র সাক্ষ্য গ্রহণের দিন। ঠিক এর আগের দিন শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে লাল্টু, রাজু ও শরিফুল লা*ঠিসোঁ*টা নিয়ে আমার ঘরে প্*রবেশ করে আমাদের মা*রধ*র করে। একপর্যায়ে আমাদের দুজনকে হা*ত-পা বেঁ*ধে আমার মেয়ে তু*লে নিয়ে যায়। এরপর তাকে গ্রামের মাথাভাঙ্গা নদীর তীরে বাঁ*শবাগানে পা*লাক্*রমে ধ*র্ষণ করে। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আমরা ভোরের দিকে মে*য়েকে উদ্ধার করি।

আলমডাঙ্গা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহাবুবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, অভিযুক্ত একজনকে আ*টক করেছে পুলিশ বাকিদের গ্রে*ফতা*রে পুলিশের অ*ভিযান চলছে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

  • 257
    Shares