প্রচ্ছদ আইন-আদালত ‘আরেকটু আস্তে ধরুন’

‘আরেকটু আস্তে ধরুন’

64
পড়া যাবে: 3 মিনিটে
advertisement

বরগুনার আলোচিত রিফাত হ*ত্যা মা*মলার প্রধান সা*ক্ষী থেকে আ*সামি হিসেবে গ্রে*প্তার হওয়া আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে আ*দালতে হা*জির করা হয় গত বুধবার। গ্রে*প্তারের পর কয়েকদফা আ*দালতে নেয়া হয় মিন্নিকে। ১৪ আগস্ট এনটিভি তাদের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে মিন্নিকে নিয়ে একটি ভিডিও প্রচার করে। সেখানে দেখা যায় মিন্নিকে পুলিশি পাহারায় প্রি*জন ভ্যা*নে থেকে নামানোর সময় পুলিশের উদ্দেশে মিন্নি বলে উঠেন, ‘আরেকটু আস্তে ধরুন’।

advertisement

অন্যদিকে মিন্নির জা*মিনের বিষয়ের হা*ইকোর্ট বলেছেন, এ পর্যায়ে আ*সামিদের ১৬*৪ ধা*রায় দেওয়া স্বী*কারো*ক্তিমূ*লক জ*বানব*ন্দি না দেখে আমরা তার জা*মিন দেব না। আমরা সর্বোচ্চ তার জা*মিন প্রশ্নে একটা রু*ল জা*রি করতে পারি।

রিফাত হ*ত্যা মা*মলায় এ পর্যন্ত ১৫ জনকে গ্রে*প্তার করেছে পুলিশ। এরা হচ্ছেন- রিফাত ফ*জী, রিশান ফ*জী, চন্দন সরকার, রাব্বি আকন, হাসান, অলি, টিকটক হৃদয়, সাগর, কামরুল ইসলাম সাইমুন, আরিয়ান শ্রাবণ, রাফিউল ইসলাম রাব্বি, তানভীর, নাজমুল হাসান, রাতুল সিকদার ও আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি। এদের মধ্যে রাতুল শিকদারের বয়স কম হওয়ায় সে যশোরে শিশু-কি*শোর সং*শোধ*ন কেন্দ্রে রয়েছেন।

আরও পড়ুন:  মুসা বন্ডসহ এ*জাহারনামীয় চার আ*সামি এখনও প*লাতক,পুলিশ বলছে তদন্ত শেষ পর্যায়ে

মা*মলা*র এ*জাহা*রভুক্ত পাঁচনম্বর আ*সামি মু*সা বন্ড, সাত নম্বর আ*সামি মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, আট নম্বর আ*সামি রায়হান ও ১০ নম্বর আ*সামি রিফাত হাওলাদারকে এখনো পুলিশ গ্রে*প্তার করতে পারেনি। প্রধান আ*সামি নয়ন বন্ড গত ২ জুলাই পুলিশের সঙ্গে ব*ন্দুকযু*দ্ধে নি*হত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬শে জুন সকালে প্র*কাশ্যে বরগুনা সরকারি কলেজ গেটের সামনে রিফাতকে কু*পিয়ে আ*হত করা হয়। গু*রুতর আ*হত অবস্থায় বরিশাল নেয়ার পর তিনি মা*রা যান। এ ঘটনায় রিফাতের বাবা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ বা*দী হয়ে ১২ জনকে আ*সামি করে বরগুনা থানায় হ*ত্যা মা*মলা করেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

  • 13
    Shares
advertisement