প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ১২৮তম জন্মবার্ষিকী পালন

11
শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ১২৮তম জন্মবার্ষিকী পালন
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

শহীদ সোহরাওয়ার্দীর স্বপ্নের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় বিচার বর্হিভূত হত্যকান্ড বন্ধ করুন : সাবেক সচিব সিরাজউদ্দিন আহমেদ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনীতি যার হাত ধরে তিনি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী। জনগণের প্রতি অসীম ভালোবাসা এবং গণতন্ত্রের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাই ছিল হোসেন তার জীবনের প্রধান বৈশিষ্ট্য বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক সচিব ও ইতিহাসবিদ সিরাজউদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর স্বপ্নের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় বিচার বর্হিভূত সকল হত্যাকান্ড বন্ধ করা উচিত। বিচার বর্হিভূত হত্যাকান্ড কোন গণতান্ত্রক রাষ্ট্র কাঠামোর জন্য শুভ নয়।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) মাজার প্রাঙ্গনে উপমহাদেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদন, গণতন্ত্রের মানসপুত্র হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী’র ১২৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা ও মানুষের কল্যাণের জীবন ও আদর্শ জাতিকে সবসময় প্রেরণা যুগিয়ে আসছে। তিনি বলেন, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি বিকাশে সারাজীবন কাজ করেছেন।

জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এম এ জলিলের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন জাতীয় পার্টি (জেপি) অতিরিক্ত মহাসচিব মুক্তিযোদ্ধা সাদেক সিদ্দিকী, কৃষকনেতা ও আবাহনী লিঃ এর পরিচালক শেখ মো. জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বঙ্গবন্ধু গবেষনা পরিষদ সভাপতি লায়ন গনি মিয়া বাবুল, কৃষক নেতা এম এ করিম, ন্যাপ ভাসানী চেয়ারম্যান মোসতাক আহমেদ, জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, সাবেক ছাত্রনেতা সাংবাদিক মানিক লাল ঘোষ, আওয়ামী লীগ নেতা আ স ম মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

আরও পড়ুন:  যেভাবে ফেঁসে যান ডা. সাবরিনা

জেপি অতিরিক্ত মহাসচিব সাদেক সিদ্দিকী বলেন, গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা ও রাজনৈতিক সংকট নিরসনে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর জীবন ও আদর্শ আমাদের প্রেরণা যোগায়। বাংলার রাজনীতিতে হোসেন তার অবদান আজকের প্রজন্মকে জানাতে হবে।

তিনি বলেন, ইতিহাসে যার যে মর্যাদা তাকে তা প্রদান করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। রাষ্ট্রের ও জনগনের ঐক্যের স্বার্থেই শেরে বাংলা, মওলানা ভাসানী, সোহরাওয়ার্দীকে যথাযথ মর্যাদায় স্মরন করা সকলের দায়িত্ব।

ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, বিশ শতকের গোড়ার দিক থেকে যে ক’জন রাজনীতিক আধুনিক বাঙালির আশা-আকাঙ্ক্ষাকে বাস্তবায়ন করার জন্য রাজনীতির ক্ষেত্রে আমৃত্যু সংগ্রাম চালিয়ে গেছেন, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী তাঁদের মধ্যে অন্যতম। রাজনীতির জগতে সাফল্য লাভ করতে হলে যে কৌশলের আশ্রয় নিতে হয় এবং রাজনীতির জন্য প্রয়োজন হয় যে তীক্ষ মেধার, তার পরিচয় পাওয়া যায় সোহরাওয়ার্দীর রাজনৈতিক জীবন থেকে। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ক্ষেত্রে তাঁর অবদান বাঙালি জাতির সামনে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

লায়ন গনি মিয়া বাবুল বলেন, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মতো নেতাদেরকে বর্তমান প্রজন্ম দেখেনি। কিন্তু ইতিহাস থেকেও তাকে চিনতে পারেনি। বর্তমান প্রজন্মের অধিকাংশ ছেলে মেয়েই মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে জানে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বহন করে, লালন করে। ঠিক তমনইভাবে রাষ্ট্রীয়ভাবে তাকে আজকের প্রজন্মের নিকট তুলে ধরতে কার্যকরী কর্মসূচী গ্রহন করা উচিত।

আরও পড়ুন:  এটিই শেষ ঘটনা, আশ্বাস পুলিশের

কৃষক নেতা শেখ মো. জাহাঙ্গির আলম বলেন, উনবিংশ শতাব্দীর শেষের দিকে জন্মগ্রহণ করিয়া বিংশ শতাব্দীর ষাট দশকের প্রায় মাঝামাঝি পর্যন্ত বৃটিশবিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনসহ ভারতীয় মুসলিম জাতির প্রতিটি ইস্যুতে প্রয়োজনীয় ভূমিকা পালন করে যারা জাতীয় জীবনে অমর হয়ে আছেন গণতন্ত্রের মানষপুত্র হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী তাদের অগ্রগামীদের একজন।

সভাপতির বক্তব্যে মুক্তিযোদ্ধা এম এ জলিল বলেন, বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবনে শহীদ সোহরাওয়ার্দী সাহেবের প্রভাব যে কতটা স্পষ্ট, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটি পড়লেই ঝকঝকে হয়ে উঠবে। বঙ্গবন্ধুকে বাংলার নেতা হিসাবে তিনিই প্রস্তুত করেছিলেন।

তিনি আরো বলেন, উপমহাদেশের মেহনতি মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও রাজনৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী আজীবন সংগ্রাম করেছেন। একজন প্রতিভাবান সংগঠক হিসেবে তাঁর দক্ষ পরিচালনায় গণমানুষের সংগঠন আওয়ামী লীগ আরও বিকশিত হয়।

আলোচনা সভা শেষে নেতৃবৃন্দ হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন ও ফাতেহা পাঠ করেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।