প্রচ্ছদ অপরাধ

বিয়ের তিন মাস পর স্ত্রী জানলেন, স্বামী ভু’য়া পুলিশ

84
বিয়ের তিন মাস পর স্ত্রী জানলেন, স্বামী ভু’য়া পুলিশ
পড়া যাবে: < 1 minute

ঢাকার ধামরাই উপজেলায় পুলিশের গো’য়েন্দা শাখার (ডিবি) উপপরিদর্শক (এসআই) পরিচয় দিয়ে বিয়ের তিন মাসের মাথায় স্বামীকে শ্রী’ঘরে পাঠিয়েছেন এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ধামরাই পৌর এলাকার বরাতনগর মহল্লায়। আটক পুলিশ পরিচয়দানকারী ব্যক্তির নাম সৈয়দ মুরাদ (৩০)। তিনি মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার হিজলিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ বলছে, তিন মাস আগে মানিকগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশের এসআই পরিচয় দিয়ে ধামরাইয়ের বরাতনগর এলাকার এক তরুণীকে বিয়ে করেন সৈয়দ মুরাদ। এ সময় মুরাদ স্ত্রীকে শ্বশুরবাড়িতেই রেখে বিভিন্নভাবে নির্যা’তন চালাতেন।

আরও পড়ুন:  পরিকল্পিত খু’নি হলেন মাত্র ১৬ বছর বয়সে!

গতকাল পুলিশের পোশাক পরে সৈয়দ মুরাদ বরাতনগর এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে এলে তাঁর কথাবার্তায় ভু’য়া পুলিশ সন্দেহ হয় স্ত্রীর। এ সময় স্ত্রী ‘তুমি কোন থানায় কর্মরত আছো’ জানতে চাইলে তাঁকে মা’রধ’র করেন মুরাদ। স্ত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে মুরাদকে পিটু’নি দেয়। এরপর ধামরাই থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করে।

নির্যা’তিত ওই গৃহবধূ প্রতা’রক স্বামীর ক’ঠোর শা’স্তি দাবি করেছেন। এ বিষয়ে ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, আটক প্রতারক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ পরিচয় দিয়ে ওই তরুণীকে বিয়ের কথা স্বীকার করেছেন।

তাঁর বিষয়ে আরো তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তাঁর কাছ থেকে প্রতার’ণার কাজে ব্যবহৃত পুলিশের পোশাকও উদ্ধার করা হয়। আটক ভু’য়া পুলিশের বিরুদ্ধে আজ সকালে থানায় মা’মলা করে তাঁকে দুপুরে আদালতে পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন:  প্রতারণার প্রমাণ মিলেছে ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে তদন্ত

সূত্র : এনটিভি উনলাইন

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 8
    Shares