প্রচ্ছদ এক্সক্লুসিভ

জ্ঞান ফিরেই ডিসি অফিস থেকে দৌড় দিয়ে এ কি করলেন ডিসির সহকারী সাধনা ( ভিডিও)

272
পড়া যাবে: 4 মিনিটে

নারী অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার সঙ্গে জামালপুরের প্রাক্তন জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা এখন দেশজুড়ে আলোচিত।

ইতিমধ্যে এ ঘটনায় আহমেদ কবীরকে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করা হয়েছে। তার জায়গায় নতুন ডিসি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন মো. এনামুল হক। রবিবার (২৫ আগস্ট) এ সংক্রান্ত পৃথক দুটি আদেশ জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এ ঘটনার পর থেকে ডিসি ও নারীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। তবে হঠাৎ করে আজ সোমবার সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে জেলা প্রশাসকের অফিসে হাজির হন তিনি। সকালে বোরখা এবং হিজাব পরিবর্তন করে হঠাৎ করে অফিসে হাজির হন। এ সময় তার হাতে একটি ছুটির দরখাস্ত দেখা যায়।

এর কিছুক্ষণের মধ্যেই কেউ কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন সাধনা। পরে অফিসের কর্মরতদের সহায়তায় জ্ঞান ফিরলে সাধনা ছুটির দরখাস্ত দিয়ে দ্রুত অফিস ত্যাগ করেন।

এরপর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার বাসায় খোঁজ নিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত নাম্বারটিও বন্ধ রয়েছে। যদিও ডিসি আহমেদ কবীরের সাথে ভিডিও প্রকাশের পর থেকে তিনি নিজের বাসায় থাকছেন না। মোবাইল ফোনও বন্ধ রেখেছেন।

জানা গেছে, পিয়ন পদে চাকরি করলেও ডিসি অফিসে দোর্দণ্ড প্রতাপে দাপিয়ে বেড়াতেন সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা। তার প্রভাবের মুখে সব সময় কর্মকর্তা কর্মচারীরা থাকতো তটস্থ। শুধু কর্মচারীরাই নয় উর্ধতন কর্মকর্তাদেরও থোড়াই কেয়ার করতেন তিনি। চাকরি হারানোর শংকায় প্রতিবাদ করতে সাহস পেত না কেউ।

ডিসি অফিসে গুঞ্জন রয়েছে, ছায়া ডিসি সাধনার হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন একাধিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। ডিসির প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্নি দপ্তরে বদলি, নিয়োগ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি বাণিজ্য করে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা। জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত কাজে সাধনাকে ম্যানেজ করতো সুবিধাভোগীরা। সবার মাঝেই ছায়া ডিসি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছিলেন এই প্রভাবশালী পিয়ন।

ভিডিও

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

  • 43
    Shares