প্রচ্ছদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

সাধ্যের মধ্যে ইয়ারবাডস আনছে নকিয়া

15
সাধ্যের মধ্যে ইয়ারবাডস আনছে নকিয়া
পড়া যাবে: < 1 minute

বিগত কয়েক মাসে বাজারে বেশ অনেকগুলি ট্রু ওয়্যারলেস ইয়ারবাডস লঞ্চ হয়েছে। বিশ্ব বাজারে এই প্রোডাক্টটির চাহিদা দিনের পর দিন বাড়ছে।

বর্তমানে প্রায় সমস্ত ইলেকট্রনিক পণ্য প্রস্তুতকারী ব্র্যান্ড, এই প্রোডাক্টটি বাজারে আনতে চাইছে। এবার এই তালিকায় নাম লেখালো আমাদের সবার পরিচিত কোম্পানি নকিয়া। আজ, নোকিয়া নতুন এসেনশিয়াল ট্রু ওয়্যারলেস ইয়ারফোন ই৩৫০০ লঞ্চ করেছে। তাহলে আসুন দেখে নিই, এই নতুন ইয়ারবাডসটির কী বিশেষত্ব।

প্রথমেই বলে রাখি, এই ট্রু ওয়্যারলেস ইয়ারবাডসটিতে ১০ মিলিমিটার অডিও ড্রাইভার আছে, যেটি উন্নত অডিও আউটপুট সরবরাহের কথা নিশ্চিত করে। অন্যদিকে ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজ রিডাকশন অর্থাৎ আশেপাশের শব্দ হ্রাস করার জন্য এতে Qualcomm aptX অডিও ডিকোডিং এবং কোয়ালকম সিভিসি টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে। ইউজাররা এই ইয়ারবাডসটিতে উন্নত মানের কলিং এক্সপিরিয়েন্স এবং ডুয়াল মাইক্রোফোন সেটআপ পাবেন।

আরও পড়ুন:  ২৪ ঘণ্টায় জেফ বেজোসের সম্পদ বাড়ল ১৩ বিলিয়ন ডলার

শুধু তাই নয়, E3500 ইয়ারবাডসে অ্যাম্বিয়েন্ট সাউন্ড মোড সাপোর্ট থাকবে, যা পছন্দসই মিউজিক উপভোগ করার সময় ইউজারকে আশেপাশের সমস্ত পরিবর্তনগুলি শুনতে সহায়তা করে। এই ইয়ারবাডসটির ওজনও বেশ হালকা এবং এটি IPX5 সার্টিফায়েড। নোকিয়া এসেনশিয়াল ট্রু ওয়্যারলেস ইয়ারফোন ই৩৫০০ তে ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট সাপোর্ট রয়েছে। ফলে ইউজাররা সহজেই ভয়েস কমান্ডের মাধ্যমে বা টাচ কন্ট্রোলের মাধ্যমে সহজেই মিউজিক ট্র্যাক এবং কল নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

এছাড়া, নোকিয়া দাবি করেছে এই ইয়ারবাডটি ৭ ঘন্টা পর্যন্ত প্লেব্যাক দিতে পারে এবং ইউজাররা চার্জিং কেসের মাধ্যমে দিনে প্রায় তিন বার এটি চার্জ করতে পারবেন। এই কারণে প্রোডাক্টটিতে একটি ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট দেওয়া হয়েছে। আগ্রহীরা, কালো, সাদা এবং নীল – তিনটি রঙের বিকল্পে এটিকে কিনতে পারবেন।

আরও পড়ুন:  ২০২০ সালের সেরা ল্যাপটপ ব্রান্ড এর খ্যাতি অর্জন করল আসুস

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 6
    Shares