প্রচ্ছদ বাংলাদেশ উপজেলা

নগরী থেকে ইয়াবা ও মোটরসাইকেল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার

21
নগরী থেকে ইয়াবা ও মোটরসাইকেল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার
পড়া যাবে: < 1 minute

নিজস্ব প্রতিবেদক::

অদ্য ১৪/০৯/২০২০খ্রিঃ রাত অনুমান ০৯.৪০ ঘটিকায় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই(নিঃ) মোঃ আকবর হোসেন, এসআই(নিঃ) মোঃ আসলাম হোসেন, এএসআই/ গিয়াস উদ্দিন, কনস্টেবল/ অনল কুমার নাগ, কনস্টেবল/ রোমন গঞ্জু, কনস্টেবল/ বাপ্পী দাস, কনস্টেবল/ রতন চন্দ্র দেব-দের নিয়ে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের টহলরত টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতয়ালী মডেল থানাধীন তালতলা পয়েন্টস্থ পাবন কর্ণার নামক মোটরসাইকেলের এক্সাসরিজ বিক্রির দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে ১। মোঃ আলমগীর হোসেন (২৬), পিতা- আহমদ আলী, মাতা- নাজমা বেগম, সাং- গোয়ালাবাজার, উমরপুর, থানা- ওসমানীনগর, জেলা- সিলেট, বর্তমানে- শ্রাবনী ২১, মদিনা  মার্কেট, থানা- কোতয়ালী, জেলা- সিলেট, ২। সাদিক আহমদ @ সাদেক (৩০), পিতা- কামাল মিয়া, মাতা- আফিয়া বেগম, মাঝিগাছা, থানা- সদর, জেলা- কুমিল্লা, বর্তমানে- বাসা নং- ১২২, কুয়ারপাড়, থানা- কোতয়ালী, জেলা- সিলেট নামীয় দুই মাদক ব্যবসায়িকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকালে উক্ত আসামীদ্বয়ের হেফাজত হতে ১৪০ (একশত চল্লিশ) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রির কাজে ব্যবহৃত সুনামগঞ্জ হ ১১-৩২৫৭ রেজিষ্ট্রেশন বিশিষ্ট একটি ১০০ সিসি খয়েরী রংয়ের ঞঠঝ মোটরসাইল পেয়ে জব্দ করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, ধৃত আসামীদ্বয় পেশাগত মাদক ব্যবসায়ি এবং তারা দীর্ঘদিন যাবত ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রয়ের সাথে জড়িত। অনুসন্ধানকালে আরো জানা যায়, সিলেট জেলার জকিগঞ্জ সীমান্তবর্তী এলাকা হতে আসামীদ্বয় পরস্পর যোগসাজশে বিশেষ কৌশলে ইয়াবা ট্যাবলেট সিলেট শহরে নিয়ে আসে এবং আসামী সাদিক আহমদ @ সাদেক এর ব্যবহৃত মোটরসাইকেল যোগে শহরের বিভিন্ন স্থানে মাদক বিক্রেতা/ মাদক সেবীদের নিকট ইয়াবা ট্যাবলেট খুচরা ও পাইকারী দরে বিক্রি করে থাকে।  উক্ত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে মাদকদব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজুর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে।

আরও পড়ুন:  আলম খান মুক্তির চাচার মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।