প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

করোনায় আক্রান্ত ও কর্মহীন মানুষের পাশে আতাউর রহমান আতা

13
করোনায় আক্রান্ত ও কর্মহীন মানুষের পাশে আতাউর রহমান আতা
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

সারাবিশ্বে করোনার ভয়াবহতায় বিপর্যস্থ জনজীবন। সাধারণ খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষ যখন মানবেতর জীবন যাপন করছে। ঠিক সে মুহুর্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে এসেছেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক জননেতা , আতাউর রহমান আতা মহোদয়। সারাদেশে যখন ত্রাণের জন্য হাঁ-হাঁ কার। নানা রকম কেলেঙ্কারির খবর আসছে জনপ্রতিনিধিদের। সে সময় শুধু সরকারি ত্রাণের অপেক্ষায় বসে না থেকে ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায় মানুষের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান। কুষ্টিয়া করোনা আক্রান্ত রোগীর নিয়মিত খোঁজ নিয়ে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান , আতাউর রহমান আতা মহোদয়। হাসপাতাল থেকে তালিকা সংগ্রহ করে প্রত্যেক রোগীর কাছে ফোন দিয়ে খোঁজ খবর নেন এবং তাদের প্রয়োজনের কথা জেনে সেভাবে ব্যবস্থা নেন তিনি। সেই সাথে রোগীর বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার, ঔষুধ ও খাবার পৌঁছে দেন। সব ধরনের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে কুষ্টিয়া শহর ছাত্রলীগের ৪২ জন করোনা স্বেচ্ছাসেবক টিম প্রস্তুত করেন। এই করোনা স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা প্রয়োজনীয় সবকিছু রোগীদের বাসায় পৌঁছে দেন। এই করোনা স্বেচ্ছাসেবক টিমের নেতৃত্বে দেন, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক জননেতা , আতাউর রহমান আতা মহোদয় এবং পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া শহর ছাত্রলীগের আহবায়ক মোঃ হাসিব কোরাইশী। প্রতিটি ওয়ার্ডের অসহায় মানুষের খোঁজ খবর নিয়ে তাদের ঘরে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন আতাউর রহমান আতা মহোদয়। সরকারি ত্রাণ সামগ্রী ছাড়াও ইতোমধ্যে ব্যক্তিগত ভাবেও খাদ্যসামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করা করেছেন। নিজের ফোন নম্বর ফেসবুকে শেয়ার করে ঘোষণা দিয়েছেন দিনরাত যখনই কারো খাবারের সমস্যা হবে ফোন করলেই, ঘরে পৌঁছে যাবে খাবার এবং তিনি প্রতিনিয়ত প্রত্যেকটি করোনা রোগীদের খোঁজ খবর রাখেন।
এই সংকটময় মুহুর্তে কুষ্টিয়া শহর ছাত্রলীগ করোনা স্বেচ্ছাসেবকদের ঘরের বাইরে বের হতেই হয়। তাই কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান , আতাউর রহমান আতা মহোদয় স্বেচ্ছাসেবকদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে শহর ছাত্রলীগ করোনা স্বেচ্ছাসেবকদের জীবাণু সংক্রমণের ঝুঁকিমুক্ত পোশাক- পিপিই, স্যানিটাইজার, ফেস প্রটেক্টর, গ্লোভস্, চশমা ও জুতা উপহার দিয়েছেন। এ ছাড়াও, বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর আগে থেকেই কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামে গ্রামে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়েছেন। এবং ডাক্তারদের ফোন নাম্বারসহ সচেতনতামূলক লিফলেট, টেলি মেডিসিন, হ্যান্ডওয়াশ ও স্যানিটাইজার বিতরণ করেছেন।
কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা মহোদয় বলেন, মানবিক বোধ থেকে প্রতিটি রোগীর খোঁজ নিয়ে আসছি। সামাজিক বা পারিবারিকভাবে যাতে কোনো রোগীর সমস্যা না হয়, সেজন্য আমরা মানবিক কমিটি গঠন করেছি। এদিকে কাজ করতে গিয়ে এ কমিটির বেশ কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী বলেন, করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রতিটি রোগীর খোঁজ খবর নিচ্ছেন এবং আমরাও সবসময় সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে সব ধরনের সহযোগিতা করেছি। বৈশ্বিক এই দূর্যোগ মোকাবেলার সময় এসেছে মানুষের পাঁশে মানুষের দাঁড়ানোর। প্রধানমন্ত্রী আহ্বান জানিয়েছেন, সবাইকে মানবিকতার পরিচয় দিতে। অসহায়দের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে। প্রধানমন্ত্রীর সেই আহ্বানে সাঁড়া দিয়ে কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক জননেতা, আতাউর রহমান আতা মহোদয় মানব সেবার যে দৃষ্টান্ত রেখেছেন তা সত্যি ব্যতিক্রম এমনটাই মনে করেন কুষ্টিয়া সদরের প্রতিটি স্তরের সাধারণ মানুষ।

আরও পড়ুন:  সেপ্টেম্বরের মধ্যে ছাত্রলীগের সর্বস্তরের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে হবে: নানক

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।