প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

দৌলতপুরে সীমান্তের মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া

13
দৌলতপুরে সীমান্তের মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া
পড়া যাবে: < 1 minute

বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত বর্তী এলাকা কুষ্টিয়া জেলার ২৪২টি গ্রাম নিয়ে গঠিত দৌলতপুর উপজেলা । সীমান্ত এলাকা হওয়ায় উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে প্রতিদিন দেশের অভ্যন্তরে ভারত থেকে অবাধে আসছে মরণ নেশা ফেনসিডিল, হেরোইন, মদ ও গাঁজা। প্রতিদিন বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশের অভিযানে কিছু মাদক ধরা পড়লেও বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে সিংহভাগ মাদক মজুদ ও পাচার করছে মাদক ব্যবসায়ীরা।
বর্তমানে সীমান্ত এলাকায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। সরেজমিনে দৌলতপুর সীমান্ত এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সীমান্তের রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের মুন্সীগঞ্জ, মোহাম্মদপুর, ডাঙ্গেরপাড়া ও তালপট্টি, চিলমারী ইউনিয়নের মরারচর, হবিরচর, উদয়নগর, বাজুমারা ও বাংলাবাজার , প্রাগপুর ইউনিয়নের প্রাগপুর, বিলগাথুয়া, ময়রামপুর, মহিষকুন্ডি মাঠপাড়া ও জামালপুর ভাঙ্গাপাড়া, আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের গড়ুরা, ধর্মদহ ও কাজিপুর , সহ বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে দিনে ও রাতে ভারত থেকে আসছে ফেনসিডিল, হেরোইন, গাঁজা ও মদ সহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য। এলাকাবাসী জানায়, প্রথমে মাদক বহনকারীরা সীমান্তের ওপার থেকে ফেনসিডিলসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য পুটলি বা বস্তায় করে আবার পদ্মায় পানি বেড়ে গেলে প্লাস্টিক বস্তায় বেঁধে সাঁতরে, অথবা পানিতে ভাসিয়ে নিয়ে নদী পার হয়ে বাংলাদেশের মাদক ব্যবসায়ীর কাছে পৌঁছে দেয়। এরপর তারা সুবিধামতো স্থানে মজুদ করে চাহিদা অনুসারে পৌছে দেয়া হচ্ছে রাজধানী ঢাকা, কুষ্টিয়া, রাজবাড়ি, ফরিদপুরসহ নির্দিষ্ট গন্তব্যে।
তারা আরো জানায়, বর্তমানে প্লাস্টিকের বোতলজাতকৃত ফেনসিডিল যেখানে কাঁটাতার আছে সেখানে ভারতীয়রা ছোট ছোট পুটলি বেঁধে বিভিন্ন মাদকদ্রব্য কাঁটাতারের ওপার থেকে এপারে ছুড়ে ফেলে এবং বাংলাদেশী মাদক ব্যবসায়ীরা সেগুলো কুড়িয়ে নিয়ে তাদের গন্তব্যে নিয়ে যাচ্ছে। সীমান্তের মুন্সীগঞ্জ, জামালপুর, আবেদের ঘাট এবং ভাগজোত এলাকার এক ডজন ব্যক্তি এ মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করছে বলে স্থানীয় সুত্রগুলো জানায়। একইভাবে প্রাগপুর, গড়ুরা, ধর্মদহ, শেহালা, ডাংমড়কা, মথুরাপুর, তারাগুনিয়া, হোসেনাবাদ, আবেদের ঘাট, আল্লারদর্গা, রিফাইতপুর ও দৌলতপুর সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পৃথক পৃথক মাদক সিন্ডিকেটের মাধ্যমে এই ব্যবসা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে বলে সুত্রগুলো নিশ্চিত করেছে।

আরও পড়ুন:  কুষ্টিয়া কেটিসির নির্বাহী লিয়াকত ও হিসাব রক্ষক মনিরুলের বিরুদ্ধে সমবায় কর্মকর্তাদের অভিযান

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।