প্রচ্ছদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

গুগল অ্যাডসেন্স না পাওয়ার ভিন্নধর্মী কিছু কারণ

7
গুগল অ্যাডসেন্স না পাওয়ার ভিন্নধর্মী কিছু কারণ
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

গুগল অ্যাডসেন্স কে বলা হয় সোনার হরিণ। বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এডভেটাইজ নেটওয়ার্ক গুগল অ্যাডসেন্স । যারা ব্লগিং করেন অথবা ব্লগিং সম্পর্কে বিন্দুমাত্র ধারণা আছে তারা নিশ্চয় জানেন যে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার জন্য কিছু শর্ত পূরণ করতে হয় । তারমধ্যে সবচেয়ে বেশি জোর দেওয়া হয় ইউনিক কন্টেন্ট ৷

আপনি যদি অন্য কোন খান থেকে কনটেন্ট কপি করে নিয়ে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট করেন তাহলে নিঃসন্দেহে আপনি অ্যাডসেন্স পাবেন না৷

এখন আপনার ইউনিক কন্টেন্ট রয়েছে আপনি এখন খুশি মনে অ্যাডসেন্স এপ্লাই করলেন কিন্তু এডসেন্স আপনার ওয়েবসাইটটি এপ্রুভ করল না। কেন করলো না জানেন?

শুধু ইউনিক পোস্ট থাকলেই হবে না তার পাশাপাশি আরও কিছু খুঁটিনাটি নিয়মকানুনগুলো আপনাকে মেনে চলতে হবে৷

১.টপ লেভেল ডোমেইন ব্যবহার করুন :
আপনি যদি টপ-লেভেল ডোমেইন ব্যবহার করেন না থাকেন, তাহলে গুগল আপনার আবেদন নাকচ করে দেবে । তবে অনেক সময় টপ লেভেল ডোমেইন ছাড়াই গুগল অ্যাডসেন্স এপ্রুভ করে অনেক সময় সাবডোমেইন ওয়েবসাইটগুলোতেও গুগল এডসেন্স অ্যাপ্রুভ করে । কারণ সেগুলো তে প্রচুর পরিমাণে ইউনিক কন্টেন্ট থাকে৷ তার পাশাপাশি সেই সকল সাইটে প্রচুর পরিমাণে ভিজিটর আসে এদের অ্যালেক্সা রেংকিংও মোটামুটি ভালো৷ তার পাশাপাশি ওয়েবসাইটে থিমটিও সুন্দর।

২.কনটেন্ট এর মান ভালো না হলে:
কনটেন্ট এর মান ভালো না হলে গুগল কখনই আপনার ওয়েবসাইটটি এপ্রুভ করবেনা । কারন গুগল যখন আপনার ওয়েবসাইট রিভিউ করে তখন রক্ত মাংসের মানুষ এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট রিভিউ করা হয় । সুতরাং তারা যদি সেখানে যুক্তিপূর্ণ এবং ভালো মানের কনটেন্ট না দেখে তখন তারা আপনার আবেদন নাকচ করে দেবে৷

আরও পড়ুন:  অ্যাপ ছাড়াই ফোনের ছবি-ভিডিও লুকিয়ে রাখবেন যেভাবে

সুতরাং আপনি যে বিষয়টিতে অভিজ্ঞ এবং দক্ষ সেই বিষয়টির ওপর কিছু লেখার চেষ্টা করুন।

স্বভাবতই মানুষ সে বিষয়ে অভিজ্ঞ সেই বিষয়ের উপর ভালো কনটেন্ট লিখতে পারে৷

৩.ওয়েবসাইটের ট্রাফিক না থাকলে:
এখন প্রশ্ন আসতে পারে গুগল এডসেন্স পেতে হলে ওয়েবসাইটের ট্রাফিক তো তেমন প্রভাব ফেলেনা। আপনার কথাটি একদম ফেলে দেওয়ার মতো নয়। তবে ন্যূনতম প্রতিদিন দশ-বারোটি ভিসিয়র থাকতে হবে । তা না থাকলে গুগল আপনার ওয়েবসাইটে এপ্রুভ করবেনা।

৪.আপনার ওয়েবসাইটে থার্ড পার্টি কোন এড রাখা যাবে না :
যখন আপনি গুগল অ্যাডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করবেন তখন ওয়েবসাইটিতে কোন থার্ড পার্টি এডস রাখা যাবেনা। তাই বলে ব্যাপারটা এমন না যে আপনি স্পন্সরশীপের কোন এক রাখতে পারবেন না। মূলত অন্য কোন অ্যাড নেটওয়ার্কের এড রাখতে পারবেন না৷ যদি গুগল আপনার ওয়েবসাইটে অন্য কোন third-party অ্যাড নেটওয়ার্কের এড দেখে তাহলে গুগোল সাতগে সাথে তা নাকচ করে দেয়৷ তবে আপনি চাইলে এডসেন্সে এপ্লাই করার আগে বিভিন্ন ধরনের থার্ড পার্টি এড নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে পারেন। তবে যখন এডসেন্সে এপ্লাই করবেন তখন এই অ্যাডগুলো আপনার ওয়েবসাইট থেকে সরিয়ে নেবেন।

আরও পড়ুন:  পুরাতন কম্পিউটার কেনার আগে যে বিষয়গুলো খেয়াল করবেন

৫.ভালো কোম্পানি থেকে হোস্টিং ক্রয় করতে হবে:
এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ভালো মানের হোস্ট না থাকলে আপনি আপ টাইম কম পাবেন এবং আপটাইম কম থাকলে সে ক্ষেত্রে গুগোল আপনার ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স এর জন্য এপ্রুভ করবেনা। বিশেষ করে গুগোল অ্যাডসেন্স যেসকল স্পেশালিস্টরা রয়েছে, তারা যদি আপনার ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতে এসে ওয়েবসাইটটি বন্ধ দেখে তাহলে তারা আপনার ওয়েবসাইটটি রিভিউ করতে পারবে না । এবং আপনার ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স এর জন্য এখন হবে না।

৬.কন্টাক্ট, প্রাইভেসি ও পলিসি মেনু রাখতে হবে:
এটা আর একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আপনার ওয়েবসাইটে শুধু ইউনিক কন্টেন্ট রাখলে হবে না। তার পাশাপাশি কন্টাক্ট এবং প্রাইভেসি এন্ড পলিসি রাখতে হবে। যাতে করে গুগল বুঝতে পারেন যে আপনার ওয়েবসাইটের সাথে আপনার ওয়েব সাইটের ভিজিটরদের যোগাযোগ এর সুব্যবস্থা রয়েছে।

দিনশেষে গুগলের বিভিন্ন ধরনের পলিসি রয়েছে। এর মধ্যে কোন পলিসি বাদ পড়লে আপনার ওয়েবসাইটটি এপ্রুভ নাও হতে পারে । সুতরাং সবচেয়ে ভালো হবে গুগলের সবগুলো পলিসির একবার করে ঝালিয়ে নেওয়া ৷

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares