প্রচ্ছদ অপরাধ জি*জ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁ*সের পর যুবলীগ নেতা খালেদের বিরুদ্ধে অ*স্ত্র-মা*দক-মা*নি ল*ন্ডারিং মা*মলা

জি*জ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁ*সের পর যুবলীগ নেতা খালেদের বিরুদ্ধে অ*স্ত্র-মা*দক-মা*নি ল*ন্ডারিং মা*মলা

94
পড়া যাবে: < 1 minute

রাজধানীতে ক্যা*সিনো চালানোর অভিযোগে গ্রে*প্তার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে অ*স্ত্র, মা*দক ও মা*নি ল*ন্ডারিং আইনে গুলশান থানায় তিনটি মা*মলা দা*য়ের করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় র‌্যাব। গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বুধবার বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলের ফকিরাপুল এলাকার ‘ইয়াং ম্যান্স ক্লাব’র ক্যা*সিনোতে অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় সেখান থেকে ১৪২ জনকে আ*টক করা হয় এবং প্রায় ২৪ লাখ টাকা ও মা*দক জ*ব্দ করা হয়। পরে রাতে ক্যা*সিনোর মালিক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গুলশানের বাসা থেকে আ*টক করা হয়।

এ সময় একটি অ*বৈধ অ*স্ত্র, গু*লি ও ই*য়াবা উদ্ধার করা হয়। জানা গেছে, রাজধানীর ৬০টি স্পটে এমন অ*বৈধ ক্যা*সিনো (জু*য়ার আ*সর) ব্যবসা চলছে। কেন্দ্রীয় ও মহানগর উত্তর-দক্ষিণ যুবলীগের এক শ্রেণির নেতা এ ব্যবসায় জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে।

আরও পড়ুন:  এখান থেকেও চাঁদা পেতে হবে ? এটা আমি সহ্য করবো না।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় যুবলীগ নিয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেদিন গণমাধ্যমের খবরের ভিত্তিতে জু*য়ার আ*ড্ডাগুলো সম্পর্কে প্রমাণসহ গোয়েন্দা রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর কাছে জমা দেওয়া হয়। এতে চরম ক্ষুব্ধ হয়ে জ*ড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ও প্রশাসনিক কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর এমন কঠোর অবস্থানের পরই বুধবার র‌্যাব রাজধানীর ফকিরেরপুলে ইয়ংমেনস ক্লাব নামে একটি ক্যা*সিনোতে অভিযান চালায়। সেখানে নারীসহ ১৪২ জনকে আ*টক করা হয়। ক্লাবের ভেতর থেকে নগদ ২৪ লাখ ২৯ হাজার টাকা জব্দ করা হয়েছে। অন্যদিকে একই সময়ে যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বিতর্কিত নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে ধরতে তার গুলশানের ওই বাড়িতে ঘেরাও করে র‌্যাব। পরে প্রায় ৪ ঘণ্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তাকে অ*স্ত্রসহ আ*টক করে র‌্যাব।

আরও পড়ুন:  ক্যা*সিনোর মালিক যুবলীগ নেতা খালেদ অ*স্ত্র-ই*য়াবা সহ গ্রে*প্তার

খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া রাজধানীর মতিঝিল, ফকিরেরপুল এলাকায় কমপক্ষে ১৭টি ক্লাব নিয়ন্ত্রণ করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে ১৬টি ক্লাব নিজের লোকজন দিয়ে আর ফকিরেরপুল ইয়ংমেনস ক্লাবটি তিনি সরাসরি পরিচালনা করেন। এসব ক্লাবে প্রতিদিন ১০টা থেকে পরদিন ভোর পর্যন্ত চলে জু*য়ার আসর। একই সঙ্গে চলে মা*দক ব্য*বসা।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট: