প্রচ্ছদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

কিভাবে আপনার কন্টেন্টগুলো মানুষের কাছে পৌছাবে?

11
কিভাবে আপনার কন্টেন্টগুলো মানুষের কাছে পৌছাবে?
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

কনটেন্ট বিভিন্ন রকমের হতে পারে হতে পারে। সেটা টেক্সট কন্টেন্ট আবার হতে পারে সেটা ভিডিও কনটেন্ট। বর্তমানে টেক্সটকন্টেন্ট এবং ভিডিও কনটেন্ট এর জনপ্রিয়তা সবচেয়ে বেশি।

টেক্সট কনটেন্টগুলো পাবলিশ করে বিভিন্ন ব্লগ সাইট। এবং ভিডিও কনটেন্ট গুলো আপলোড করে ইউটিউবের বিভিন্ন চ্যানেল । টেক্সট কনটেন্ট হোক আর ভিডিও কনটেন্ট সব ধরনের কনটেন্ট ক্রিয়েটর এর একটাই লক্ষ সেটা হচ্ছে তাদের কনটেন্টগুলো যাতে মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারে। কারণ মানুষের কাছে কনটেন্টগুলো না পৌঁছলে সেগুলো মূল্যহীন হয়ে যায় । মানুষের কাছে কনটেন্টগুলো পৌঁছানোর বিভিন্ন লক্ষ থাকতে পারে ।

মানুষের কাছে কনটেন্টগুলো পৌঁছানোর বিভিন্ন উপায় রয়েছে। যেমন ভিডিও বা সাইট এসইও করে, অথবা চ্যানেল বা ওয়েবসাইট প্রমোট করে, আবার অনেক কনটেন্ট মাঝেমধ্যে ভাইরাল হয়৷

ভাইরাল কনটেন্টগুলো সারাদেশের মানুষ কমবেশি সবাই দেখে৷ সুতরাং সেগুলো জনপ্রিয়তা বেশি পায়৷ এবং মানুষের কাছে বেশি পৌঁছায়।

আসলে কনটেন্ট মানুষের কাছে পৌছানো বলার থেকে আমার স্পষ্ট ভাষায় বলা উচিত ছিল কিভাবে কনটেন্টে ভিউ বাড়ানো যায়৷ কন্টাক্ট এ ভিউ বাড়ানোর বহু উপায় রয়েছে৷ কিন্তু আপনার জন্য কোনটি উপযোগী হবে তা নিয়ে এই আর্টিকেল আলোচনা করা হয়েছে

১.এস ই ও:
এসইও বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন সম্পর্কে কমবেশি সবার ধারণা থাকার কথা । বিশেষ করে যারা ব্লগিং করে তারা সবসময় চাই সার্চ ইঞ্জিনে তাদের ওয়েবসাইটগুলোকে সবার আগে দেখতে।

আরও পড়ুন:  আইপ্যাড এয়ার ডিভাইসের ১১টি ফিচার

সাধারণত এসইওর যেসকল কোর্স গুলো রয়েছে সেগুলো সব গুলো পেইড কোর্স। অর্থাৎ টাকার বিনিময়ে আপনাকে কোর্সগুলোকে কিনে সেগুলো দেখতে হবে । বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে৷ আপনি গুগলে ঘাটাঘাটি করলেই বিভিন্ন এসইও কোর্স পেয়ে যাবেন। এসইও অর্থাৎ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন মানে আপনার কনটেন্ট এর ভ্যালু সার্চ ইঞ্জিন কে বোঝানো। সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বলতে গেলে একটা সময়ের স্বাপেক্ষ ব্যাপার।
তবে আপনি যদি সফল ভাবে আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলটি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করতে পারেন তাহলে নিঃসন্দেহে সেগুলো মানুষের কাছে পৌঁছাবে৷

 

২. কনটেন্ট প্রমোট
এখন কনটেন্ট প্রোমোট হচ্ছে এমন একটি মাধ্যমে আপনার কনটেন্ট গুলো মানুষের কাছে পৌছানো যেখানে অনেক ভিজিটর থাকে। ব্যাপারটি এমন হতে পারে যে, আপনি টাকার বিনিময় আপনার কনটেন্টের হিট কিনলেন । বা মানুষের কাছে সত্যি সত্যি আপনার কনটেন্ট গুলো পৌঁছালো৷

এখন কন্টেন্টস প্রমোটিং এর একটি ব্যাপার রয়েছে। আর সেটি হচ্ছে ভুলেও সোশ্যাল মিডিয়া এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে কনটেন্ট প্রমোট করবেন না৷

এগুলোতে সাময়িক সময়ের জন্য মানুষের কাছে কনটেন্ট গুলো পৌছায়। অনেকে টাকার বিনিময় কনটেন্ট গুলো দেখে তবে এতে একদম পাকাপাকিভাবে সাফল্য পাবেন না।

আরও পড়ুন:  যদি সম্পূর্ণ সাহারা মরুভূমি সোলার সেল দ্বারা ঢাকা থাকত তাহলে কেমন হতো?

বরং চেষ্টা করুন সেই সকল মাধ্যম দ্বারা প্রমোট করার যেগুলো সত্যি সত্যি আপনার কনটেন্ট গুলো মানুষের কাছে পৌঁছাবে এবং মানুষ যদি আপনার কনটেন্ট গুলো পছন্দ করে তাহলে হিট করবে।

৩. ভাইরাল ফেভার!
যদিওবা পোস্ট ভাইরাল খুব কম ক্ষেত্রেই হয়। এবং পোস্ট ভাইরাল হওয়ার জন্য ভাগ্যের প্রয়োজন হয়। যা খুব কম মানুষের থাকে৷

আমাদের দেশে সমালোচিত আলোচিত কনটেন্টগুলো সবচেয়ে বেশি ভাইরাল হয়। ভাল কনটেন্ট খুব কমই ভাইরাল হয়।

পরিশেষে এটুকুই বলব যে আমাদের দেশে অনেক ভাল ভাল কনটেন্ট ক্রিয়েটর রয়েছে যারা খুব ভালো মানের কন্টেন্ট ক্রিয়েট করতে পারে। কিন্তু সেই কনটেন্টগুলো মানুষের কাছে পৌঁছায় না অথবা মানুষ সে কন্টাক্ট গুলো কে প্রমোট করতে তেমন আগ্রহ প্রকাশ করে না।

অপরদিকে কেবলমাত্র এসইও করার যোগ্যতা থাকার কারণে অনেক কনটেন্ট মানুষের কাছে পৌঁছে যেগুলো তেমন মান সম্পন্ন হয় না।

সুতরাং আসুন আমরা সবাই মিলে মানসম্মত কন্টেন্ট গুলো মানুষের কাছে প্রচার এর চেষ্টা করি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।