প্রচ্ছদ এক্সক্লুসিভ

ক্যা*সিনো ইস্যুতে নোটিশ পেলেন মেনন, হুইপ, সচিবরা,সম্রাটকে ধরতে যৌথ অভিযান

429
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

ক্যা*সিনো ইস্যুতে সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন, হুইপ শামসুল হক চৌধুরী, পর্যটন সচিব মহিবুল হক, স্বরাষ্ট্র সচিবসহ সংশ্লিষ্টদেরকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। জনস্বার্থে বুধবার ডাক ও রেজিস্ট্রি যোগে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ তাদের প্রতি এই নোটিশ পাঠান। নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেন ইউনুছ আলী।

*এই নোটিশের পর আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে য*থাযথ কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে রি*ট করা হবে বলেও জানান তিনি। ক্যা*সিনো ইস্যুতে কারো কারো বিরুদ্ধে আ*ইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলেও সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেননসহ আরও অনেকের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না, তাই জনস্বার্থে এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে জানান আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

তিনি জানান, ই*য়ংমেন্স ক্লাবের গভর্নিং বডির চেয়াম্যান রাশেদ খান মেনন। কিন্তু সরকারের কর্তৃপক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে না।

আরও পড়ুন:  আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি,একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের মানুষ ভোট দিতে পারেনি (ভিডিও)
সম্রাটের খোঁজে র‌্যাব পুলিশের যৌ*থ অভিযান

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ‘ক্যা*সিনো সম্রাট’ ইসমাইল হোসেন সম্রাটের সন্ধানে র‌্যাব-পুলিশের যৌথ অভিযান শুরু হচ্ছে। অ*বৈধ জু*য়া-ক্যা*সিনো, টে*ন্ডার বা*ণিজ্য, চাঁ*দাবা*জিসহ নানা অভিযোগে তাকে গ্রে*ফতারের জন্য আগেই মাঠে নেমেছে র‌্যাব। এবার পুলিশও তাদের সঙ্গে যোগ দিচ্ছে। তবে সম্রাট দেশে আছে না পালিয়ে গেছে তা নিয়ে ধূম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে।

অসমর্থিত একটি সূত্র জানায়, ইসমাইল হোসেন সম্রাট পলাতক। তিনি পালিয়ে গেছেন। দেশ ত্যাগ করেছেন। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দাবি তিনি দেশেই আছেন। তাদের নজরদারির মধ্যেই আছেন। এ অবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে নজরদারির মধ্যে থাকলে তাকে গ্রে*ফতারে বিলম্বের হেতু কি।

কেনই বা তাকে গ্রে*ফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে না। গুঞ্জন ছিল যুবলীগ নেতা খালেদের পরই তাকে গ্*রেফতার করা হবে। কিন্তু এখনও না হওয়ায় কথার ডালপালা ছড়াচ্ছে। তবে যাতে পালাতে না পারেন সে জন্য সম্রাটের দেশ ত্যাগে নি*ষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। রোববার এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেশের সব বিমান ও স্থলবন্দরে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:  ক্যাসিনো থেকে খালেদের মাধ্যমে মাসে ১০ লাখ টাকা নিতেন রাশেদ খান মেনন

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানের মুখে লাপাত্তা এই যুবলীগ নেতা কোথায়, তা বলতে পারছেন না সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদও। সম্রাটের ঘনিষ্ঠ একজন জানান, তিনি (সম্রাট) শনিবার সকাল থেকেই অফিসে আসছেন না।

কোথায় আছেন, কেউ বলতে পারছেন না। আমরা অফিসে না পেয়ে তার বাসায় গিয়েছিলাম। সেখানেও তাকে পাইনি। রবি, সোম ও মঙ্গলবারও তিনি কাকরাইলের কার্যালয়ে আসেননি। এ অবস্থায় প্রশ্ন দেখা দিয়েছে- তাহলে তিনি কোথায়? এমন প্রশ্ন সবার মাঝে। শোনা যাচ্ছে তিনি গ্রে*ফতার এড়াতে আত্মগোপন করে আছেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 1.1K
    Shares