প্রচ্ছদ অপরাধ দলের ছেলেদের মিছিল-মিটিংয়ে খরচের বিশাল অঙ্কের টাকা ক্যাসিনো থেকেই আসতো

দলের ছেলেদের মিছিল-মিটিংয়ে খরচের বিশাল অঙ্কের টাকা ক্যাসিনো থেকেই আসতো

118
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদ্য বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে গ্রেপ্তারের পর রাজধানীর মহাখালীতে তার বাসায় অভিযান চালাচ্ছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা। আজ রোববার দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে মহাখালীর ওই বাসায় অভিযানের সময় গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন সম্রাটের স্ত্রী শারমিন চৌধুরী।

সম্রাটের জুয়ার নেশা রয়েছে জানিয়ে তার স্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘অবৈধ টাকা ও (সম্রাট) সংসারে খরচ করত না। তার ফ্যামিলি মেম্বাররা অবৈধ টাকা খাবে না- এটা তার মাথায় ছিল সব সময়। আর দল পালতে কিন্তু… আগের সময়টা কিন্তু নাই যে, ঘরের ধান খেয়ে, গরুর দুধ খেয়ে ডাক দিলেই চলে আসবে। এখন কিন্তু সময় চেঞ্জ হয়েছে। এখন ছেলেদের যদি ওরকম টাকা না দিত, তাহলে কিন্তু ওরা মিছিল-মিটিংয়ে আসত না। সে জন্য কিন্তু বিশাল অঙ্কের টাকা লাগত। আমার মনে হয় সে কারণেই ও ক্যাসিনোতে জড়িয়ে পড়েছে।’

আরও পড়ুন:  ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট যেভাবে গ্রে*প্তার

তিনি বলেন, ‘ওর সম্পদ বলতে কিছু নাই। ও যা ইনকাম করে ক্যাসিনো চালিয়ে, তা দলের জন্য খরচ করে, দল পালে। আর যা বোধহয় রাখে, সিঙ্গাপুর কিংবা…এখানে জুয়া খেলে। ও সিঙ্গাপুরে জুয়া খেলতেই যেত। জুয়া খেলা তার নেশা, কিন্তু সম্পত্তি করা তার নেশা না।’

ক্যাসিনো ব্যবসার সঙ্গে জড়িত জি কে শামীম, খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, সেলিম প্রধানকে চেনন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে সম্রাটের স্ত্রী জানান, তিনি খালেদ মাহমুদ ভূইয়া ছাড়া কাউকে চেনেন না। তিনি বলেন, ‘খালেককে চেনি। মাঝেমধ্যে অফিসে যেতাম তখন খালেকরে দেখতাম। ওতটুকুই কিন্তু, আর কিছু না।’

কোনো নেতাকে নিয়ে সম্রাট গল্প করত কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘না না। ও এগুলো পছন্দ করে না। আমি কখনো সেজে আসি কিংবা কোনো ক্যামেরার সামনে আসি, কোনো রাজনীতি করি এটা পছন্দ করত না। আমি শুরু থেকেই নামাজ পড়া পছন্দ করি, ঘরে থাকা পছন্দ করি- ও আমাকে এভাবেই রাখছে।’

আরও পড়ুন:  সম্রাটের শান্তিনগর মহাখালী ও ধানমন্ডির বাসায় র‌্যাবের অভিযান

সম্রাটের জুয়া খেলার বিষয়ে জানতেন কি না এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি পরে জানতে পেরেছি। আমি যখন বিয়ে করি তখন জুয়া জিনিসটা কি, এত বড় বড় জায়গা আছে খেলার আমার মাথায়ও ছিল না।’

সমাট্রের সঙ্গে তার দ্বিতীয় স্ত্রী শারমিন চৌধুরীর বিয়ে হয় ১৯ বছর আগে। বিয়ের আগে সম্রাটের আর্থিক অবস্থা কেমন ছিল আর এখন তার অবস্থা কেমন- সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে সম্রাটের স্ত্রী বলেন, ‘আগে ঠিক যেমন ছিল এখনো ঠিক তেমন। সম্রাটের কোনো নেশা নাই সম্পদ করার, ফ্ল্যাট করার, গাড়ি করার। ওর একমাত্র নেশাই জুয়া খেলা।’

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট:

  • 725
    Shares