প্রচ্ছদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক থেকে

অমিত সাহা হিন্দু বলে তাকে গ্রে*ফতারের দাবী করা যাবে না কেন? অমিত সাহা-কে গ্রে*ফতার করতে হবে

194
পড়া যাবে: 3 মিনিটে

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরারকে পি*টিয়ে হ*ত্যা করেছে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগ। ইতোমধ্যে ছাত্রলীগের ৯ নেতাকর্মীকে গ্রে*ফতার করা হয়েছে এবং ছাত্রলীগ থেকে তাদের বহিষ্কারও করা হয়েছে। তবে এই হ*ত্যাকা*ণ্ডের সাথে প্রথম থেকেই যে নামটি জড়িয়ে রয়েছে সে হলো অমিত সাহা। তাকে এখন পর্যন্ত গ্রে*ফতার কিংবা ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়নি।

এ বিষয় নিয়ে আজ মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) বিকালে নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েন আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। তার স্ট্যাটাসটি বাংলা ম্যাগাজিন পাঠকদের জন্য হবহু তুলে ধরা হলো-

‘অমিত সাহা-কে গ্রে*ফতার করতে হবে’

‘অমিত সাহা হিন্দু বলে তাকে গ্রে*ফতারে*র দাবী করা যাবে না কেন? এ দাবী করাটা যারা সাম্প্রদায়িকতা বলেন তারাই আসল সাম্প্রদায়িক। তবে অমিত অন্যতম অভিযুক্ত খু*নী বলে ঢালাওভাবে হিন্দু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বলা অত্যন্ত অনুচিত। সেটা করাও হবে সাম্প্রদায়িকতা।

আরও পড়ুন:  শেখ হাসিনাকে নোবেল শান্তি পুরস্কার থেকে বঞ্চিত করতেই আবরার হ’ত্যাকা’ণ্ড

অমিত-এর বিরুদ্ধে আবরার হ*ত্যার অভিযোগ শুনছি প্রথম থেকে। যে রুমে খু*ন করা হয়েছে আবরারকে সেখানেও থাকতো সে। অথচ তাকে গ্রে*ফতার করা হচ্ছে না, ছাত্রলীগের ব*হিস্কারের তালিকায়ও নেই সে। তাকে অবশ্যই গ্রে*ফতার করতে হবে ন্যা*য়বিচারের স্বার্থে।’

উল্লেখ্য, রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শের-ই-বাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরার ফাহাদের লা*শ উদ্ধার করা হয়। শিবির সন্দেহে ছাত্রলীগের কর্মীরা তাকে পি*টিয়ে হ*ত্যা করে বলে অ*ভিযোগ করেছে শিক্ষার্থীরা। আবরার ফাহাদ বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (ইইই) বিভাগের লেভেল-২ এর টার্ম ১ এর ছাত্র ছিলেন। তিনি শের-ই-বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

  • 816
    Shares