ব্যর্থতা ঢাকতেই জিয়াউর রহমানের নামে বিকৃত নাটক সাজাচ্ছে সরকার: আলাল

22
ব্যর্থতা ঢাকতেই জিয়াউর রহমানের নামে বিকৃত নাটক সাজাচ্ছে সরকার: আলাল
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

সম্প্রতি দেশের সরকারি-বেসরকারি একাধিক টিভি চ্যানেলে প্রচারিত মান্নান হীরার ‘ইনডেমনিটি’ নামক নাটকে বিএপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে বিকৃতভাবে উপস্থাপন করে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ তুলেছে বিএনপি। 

এ প্রসঙ্গে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও যুবদলের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, ‘এমননিতে আওয়ামী লীগের নাম শুনলে বাংলাদেশের মানুষের পায়ের ঘাম মাথায় উঠে। আওয়ামী লীগ চলে উল্টা পথে। জিনিসের দাম বাড়িয়ে বলে দাম বাড়েনি। পেঁয়াজ ধরা যাবে না, লবণ ধরা যাবে না, তেল-চাল-ডাল প্রত্যেকটা জিনিসের দাম এত বেড়ে গেছে যে, মানুষের নাভিশ্বাস উঠে গেছে। এখন এখান থেকে মানুষের চোখ সরাতেই জিয়াউর রহমানের নামে নানা  কিছু করছে। বিকৃত নাটক সাজাচ্ছে সরকার।’

আওয়ামী লীগ সরকারের সাবেক মন্ত্রী তারানা হালিমের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘অর্থ নষ্ট করেছেন, সময় নষ্ট করেছেন। সেই সময় ও অর্থ করোনা রোগীদের পাশে ব্যয় করলে আপনাদের ভালো হতো। বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ালে ভালো হতো।’

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা জাসাস এর আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

আলাল বলেন, ‘আমি এটাতে খুব আশ্চর্য হইনি। অনেকে বলবেন, আলাল ভাই কী বলছে। জিয়াউর রহমানকে নিয়েই তো তারা ল্যাবরেটরিতে গবেষণা করবে। বেগম জিয়া, তারেক রহমানকে নিয়েই তো করবে, এটাই স্বাভাবিক। বিএনপি নেতা-কর্মীদেরকে নিয়েই তো করবে। কারণ যদি তাই না হয় তাহলে গবেষণা করবে কাকে নিয়ে? খন্দকার মোশতাককে নিয়ে? লাভ নাই তো, সে তো কোনও দল করে নাই। সাবেক সেনাপ্রধান যিনি শেখ মুজিবুরের হত্যার সময় সেনাপ্রধান ছিলেন গবেষণা কি সেই শফিউল্লাহকে নিয়ে করবে? লাভ নাই তো, কারণ তিনি নৌকার টিকিটে এমপি হয়েছে। সাবেক বিডিআর প্রধান যিনি শেখ মুজিবের হত্যার সময় বিডিআর প্রধান ছিলেন, তাকে নিয়েও তো গবেষণা করার দরকার নেই। কর্নেল ফারুক খানকে নিয়েও গবেষণার দরকার নেই। এদের কাউকে নিয়ে গবেষণা করার দরকার নেই। কারণ তাদের সবাইকে বগলের নিচে নিয়ে আদর-আপ্যায়ন করা হয়েছে ভাগ দিয়ে।’

আরও পড়ুন:  বিএনপির আন্দোলনের ‘সীমাবদ্ধতা’ কোথায়, জানালেন কাদের

আলাল বলেন, ‘বকা দিয়ে জনগণের মন থেকে জিয়াউর রহমান বেগম খালেদা জিয়া তারেক রহমানের নাম মুছতে না পারার কারণে আজকে আওয়ামী লীগ সরকার উন্মাদ বিকৃত যৌনাচারের কাজ যে করছে তারই মধ্যে একটি এই ‘ইনডেমনিটি’ নাটক। কারণ যে নারী-পুরুষ মিলে এটা করেছে তাদের জীবনাচার সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষ জানে।’

যুবদলের সাবেক সভাপতি বলেন, ‘জিয়াউর রহমানের নামে এতকিছু করতো না, যদি জিয়াউর রহমান মাত্র সাড়ে তিন বছরে বিএনপির মত এমন একটি দল প্রতিষ্ঠা করে না যেতেন। বিএনপির বয়স ৪২ বছর, আওয়ামী লীগের বয়স ৭২ বছর। তারপরও সমানতালে বিএনপি আওয়ামী লীগকে টেক্কা দিচ্ছে।’

আওয়ামী লীগের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমানকেই তারা স্বাধীনতার ঘোষক বলতো। বেগম খালেদা জিয়াকে মহিলা মুক্তিযোদ্ধা বলতো। তারেক রহমানকে স্বাধীনতার ঘোষকের ছেলে বলতো। কিন্তু সেটা বলতে পারছে না। কারণ বিএনপি তো তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী। জনপ্রিয়তায় সমানতালে তাদের সাথে টেক্কা দিচ্ছে। এবং যতবারই দেশ শাসন করেছে বিএনপি কোনোবারই রাতের বেলায় ভোট করতে হয় নাই। যতবারই দেশ পরিচালনা করেছে কোনবারই বিডিআর-পুলিশকে দিয়ে ভোট করানো লাগে নাই। সেটা এই সরকারের করতে হচ্ছে। কারণ বর্তমান সরকারের কোনও জনভিত্তি নেই। আছে এক ধরনের বদমাইশ, যারা বুদ্ধি বিক্রি করে যারা খায়, আত্মা বিক্রি করে যারা খায়, বিবেক বিক্রি করে যারা খায়। সে সমস্ত চাপাবাজদের পক্ষে নিয়ে তাদের চাপাবাজির মধ্য দিয়ে টিকে থাকতে চায় সরকার।’

আরও পড়ুন:  বুয়েটে নি’ষিদ্ধ রাজনীতি, ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণা

জাসাস-এর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘শুধু এই প্রতিবাদী মানববন্ধনের সীমাবদ্ধ থাকবে না। যারা এই অপচেষ্টার সাথে লিপ্ত, যারা এই অপকর্মের সাথে লিপ্ত, তাদের যত অপকর্ম আছে সেই দলিল জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। সেই দায়িত্বটাও জাসাসকে নিতে হবে।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ডক্টর মামুন আহমেদের সভাপতিত্বে এবং সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, নির্বাহী ক‌মি‌টির সদস‌্য আমিনুল ইসলাম, সংগঠনের সহ-সভাপতি মো. সানাউল্লাহ ও শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা প্রমুখ।
নিউজটি পড়া হয়েছে 10061 বার

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 23
    Shares