প্রচ্ছদ রাজনীতি বিএনপি

কোকোর কবর জিয়ারত করলেন সাবেক ছাত্রদল নেত্রী নিশীতা

38
কোকোর কবর জিয়ারত করলেন সাবেক ছাত্রদল নেত্রী  নিশীতা
পড়া যাবে: < 1 minute

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর কবর জিয়ারত করলেন ইডেন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সেলিনা সুলতানা নিশীতা ।শুক্রবার সকালে বনানী কবর স্থানে যান সেলিনা সুলতানা নিশীতা। কবরের পাশে দাড়িঁয়ে দোয়া পরিচালনা করেন ওলামা দলের ঢাকা মহানগর দক্ষিনের সদস্য সচিব হাফেজ ক্বারী মোঃ রফিকুল ইসলাম। পরে ফুলের তোড়া দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন করেন।

এসময় সেলিনা সুলতানা নিশীতা বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো’র মৃত্যু স্বাভাবিক ছিল না। ওয়ান ইলেভেন সরকার তাঁকে অমানুষিকভাবে নির্যাতন করেছিল। এতেই শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। ওই সময় জিয়া পরিবারের সবাইকে এই নির্মম নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে।

আরও পড়ুন:  অনুপ্রবেশকারীরা আ লীগে ঢুকতে মরিয়া!

তিনি বলেন, ওয়ান ইলেভেনের পর বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকার একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়েছেন কোকোর নামেও। এসব মিথ্যা মামলার কারনে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। এমনকি সরকারের ষড়যন্ত্রের কারনে সুস্থ থাকাবস্থায় দেশেও আসতে পারেননি। যে দেশের জন্য কোকোর বাবা জিয়াউর রহমান যুদ্ধ করেছেন। মা খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের জন্য আজও লড়ছেন। সেই দেশে কোকো ফিরে এলেন লাশ হয়ে।সরকারের উদ্দেশে নিশীতা বলেন, জিয়া পরিবারকে ধবংস করতে একের পর এক ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। সেই ষড়যন্ত্র আজও হচ্ছে। কিন্তু কোন যড়যন্ত্র সফল হয়নি আর হবেও না। জাতীয়তাবাদী শক্তি সব ষড়যন্ত্রই রুখে দেবে। সময়ের পরির্বতনে সবকিছুর কঠিন জবাব দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন:  তর্জন-গর্জনই সার বিএনপির: সেতুমন্ত্রী

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি মালয়েশিয়ার ইউনিভার্সিটি মালায়া হাসপাতালে হৃদযন্ত্রে ক্রিয়াবন্ধ হয়ে মারা যান।
নিউজটি পড়া হয়েছে 10032 বার

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।