প্রচ্ছদ ভিন্ন স্বাদের খবর

সুপারম্যানের মতো উড়ে এসে দুধের শিশুর প্রাণ বাঁচাল এক বাইকার, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল ভিডিও

99
সুপারম্যানের মতো উড়ে এসে দুধের শিশুর প্রাণ বাঁচাল এক বাইকার, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল ভিডিও
পড়া যাবে: < 1 minute

ইন্টারনেটে ভাইরাল (Viral) একটি ভিডিওতে (Viral Video) একজন বাইকার স্বতঃস্ফূর্ততা দেখিয়ে একটি শিশুর জীবন বাঁচায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) এই ভিডিও ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হচ্ছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে এক বাইকার তাঁর চলন্ত বাইক থেকে বিদ্যুতের গতিতে নেমে একটি শিশুর জীবন বাঁচাচ্ছে।। ভিডিওটির ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর ওই বাইকারকে অনেকেই সুপারম্যান বলে অভিহিত করছেন।

২৫ সেকেন্ডের ওই সংক্ষিপ্ত ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে যে, একজন ব্যাক্তি বাইকে করে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন। তখনই তিনি সামনে একটি বাচ্চাকে বাচ্চাদের গাড়ি সমেত দ্রুত গতিতে পিছলে রাস্তার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যেতে দেখেন। বাচ্চার মাকেও ভিডিওটিতে দেখা যায়। তবে বাচ্চার মা এরকম অবস্থায় অসহায় হয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

আরও পড়ুন:  পশ্চিমবঙ্গে এক ভোলা মাছেই লাখোপতি বৃদ্ধা!

এরপরই বাইক সওয়ার কোনমতে তাঁর বাইকটিকে দাঁড় করিয়ে দ্রুত গতিতে বাচ্চাটির গাড়ির পিছনে দৌড়ায় এবং গাড়িটিকে রুখতে সক্ষম হয়। বাইকারের তৎপরতায় ওই বাচ্চাটির প্রাণ রক্ষা পায়। এবং বাচ্চাটির মা হাফ ছেড়ে বাঁচেন। ভিডিওটি কবেকার আর কোথাকার সেটা জানা সম্ভব হয়নি, তবে বাইকারটি যে লক্ষ লক্ষ মানুষের মন কেড়েছে, সেটা বলাই বাহুল্য।

১৯ সেপ্টেম্বর এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হয়েছে। এরপর থেকেই ভিডিওটি ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হচ্ছে। যারা যারা ভিডিওটি দেখেছেন, তাঁরা সবাই সেই বাইকারটির প্রশংসা করছেন এবং তাকে অতিমানব বলেও আখ্যা দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন:  কম দামে সি থ্রি মডেলের স্মার্টফোন আনলো নকিয়া

বাইকারটির নিজের জীবনের পরোয়া না করেই আচমকা বাইক থামিয়ে বাচ্চাটিকে বাঁচানোর জন্য দৌড়ায় বলেই, আজ এক মা সন্তানহারা হওয়ার থেকে বাঁচে। এরকম অনেক মানুষই আছে, যারা নিজেদের জীবনের পরোয়া না করে মানুষের জীবন বাঁচাতে ঝুঁকি নেন। আমাদের তরফ থেকে সেইসব অতিমানবকে জানাই স্যালুট।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares