প্রচ্ছদ বাংলাদেশ শিক্ষাঙ্গন

একাদশের অনলাইন ক্লাসের উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী

11
একাদশের অনলাইন ক্লাসের উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

বাংলা ম্যাগাজিন ডেস্ক  :     ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণির অনলাইন ক্লাস কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। রোববার (৪ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় ঢাকা কলেজের আয়োজনে জুম প্লাটফর্মের মাধ্যমে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, নানা প্রতিবন্ধকতা থাকার পরও অনলাইনে ক্লাস শুরু হচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য তা সফল হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, আগে আমাদের ধারণা ছিল শিক্ষকরা সব জ্ঞানের উৎস। কিন্তু আধুনিক প্রযুক্তির যুগে সব তথ্যই সবার হাতের কাছে। তাই আমরা শিক্ষকদের নিজেদের জ্ঞানের উৎস না ভেবে আদর্শ গাইড হিসেবে ভাবতে হবে। তারা আগামী প্রজন্মকে দক্ষ পথপ্রদর্শকের মতোই এগিয়ে নেবেন।

করোনাভাইরাস পরবর্তী সময়েও অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত থাকবে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের কথা বলি। সেটি বাস্তবায়ন করতে হলে ভবিষ্যতে অনলাইন কার্যক্রমের সাথে আমাদের সম্পৃক্ত হতেই হতো। করোনা পরিস্থিতি আমাদের সেই সুযোগ এখনই করে দিয়েছে। সংকট অনেক সময় আমাদের জন্য সম্ভাবনা নিয়ে আসে। করোনাভাইরাসও আমাদের সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন করে দিয়েছে। যেটা আমরা আজ থেকে পাঁচ বছর পর করতাম সেটির সাথে আমরা এখন থেকেই অভ্যস্ত হয়ে গেলাম। করোনাপরবর্তী সময়েও অনলাইনে শিক্ষাকার্যক্রম চলমান থাকবে।

আরও পড়ুন:  পথ দেখিয়ে বিপদে রাবি ভিসি

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, শিক্ষাটা যেন মানুষের আভিজাত্য তৈরি করতে না পারে, আমাদের সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমাদের শিক্ষাকে সাধারণ মানুষের চাহিদা অনুযায়ী প্রতিষ্ঠা করতে হবে। কোনো কাজই ছোট না। একজন কৃষক শিক্ষার অভাবে কৃষিকাজ ঠিকভাবে করতে পারে না। কিন্তু একজন শিক্ষিত ব্যক্তি কৃষিকাজ করলে কৃষির ব্যাপক বিপ্লব ঘটবে।

আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা আত্মসম্মানবোধ রোগে ভোগেন উল্লেখ করে উপমন্ত্রী বলেন, তারা অনেক পেশাকেই সম্মানের চোখে দেখেন না। দেশের বাইরে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সময় আমি নিজে ওয়েটারের কাজ করেছি। এটি আমাদের দেশের অনেক মানুষের কাছে নিচু কাজ মনে হবে।

আরও পড়ুন:  মাধ্যমিকের পরীক্ষা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন শিক্ষামন্ত্রী

অনেক দক্ষতা কাজে লাগানোর সুযোগ এসেছে। অনেক দক্ষতা আয়ত্ত করার সুযোগ এসেছে। আজ আমরা শিক্ষিত হয়ে আভিজাত্যের অসুস্থতায় ভুগছি। সমাজের সকল মানুষকে সম্মানের সাথে দেখতে হবে। কারও স্কিলকেই ছোট করে দেখার সুযোগ নেই।

ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক নেহাল আহমেদের সঞ্চালনায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হকসহ দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ এবং ঢাকা কলেজের একাদশ শ্রেণির প্রায় চারশ শিক্ষার্থী এতে অংশ নেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।