প্রচ্ছদ রাজনীতি বিএনপি

‘শরীরের সব রক্ত ঢেলে দিবেন কিন্তু নির্বাচনের মাঠ ছেড়ে কেউ যাবেন না’

36
‘শরীরের সব রক্ত ঢেলে দিবেন কিন্তু নির্বাচনের মাঠ ছেড়ে কেউ যাবেন না’
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী মন্তব্য করে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল বলেন, ‘এই সরকার যে গুণ্ডামির নির্বাচন করছে, স্বৈরাচার এরশাদের সময় আমরা এরকম গুণ্ডামির নির্বাচন দেখেছি। এরশাদের সময় যেমন নির্বাচন করেছেন এরশাদ, ঠিক তেমনিভাবে একই কায়দায় এবং তার চাইতে বেশি খারাপভাবে নির্বাচন চালু করেছে এই নির্বাচন কমিশন। এটি একটি অটিস্টিক প্রতিবন্ধী নির্বাচন কমিশন।

রোববার রাজধানীর সায়দাবাদ এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগকালে এক পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

আজকে বাংলাদেশে নির্বাচনের নামে তামাশা চলছে উল্লেখ করে সোহেল বলেন, আমরা কত অভিযোগ দিয়েছি কিন্তু উনারা চোখেও দেখে না, কানেও শোনে না। তারা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড এর অর্থ বুঝেন, যারা তাদেরকে চেয়ারে বসিয়েছেন সেই সরকারী দলকে গুণ্ডামি করতে দেয়া, মাস্তানি করতে দেয়া ও ভোট ডাকাতি করতে দেয়া এবং প্রশাসনও সেই একই রাস্তায় হাটছে।

তিনি বলেন, আমরা ওই নির্বাচন কমিশনকে বলতে চাই আপনাদের বেতন দেয় জনগণ। জনগণের বেতন নিয়ে জনগণের ভোটাধিকার করে নিবেন, বাংলাদেশের জনগণ তা আর মেনে নিবে না। সাংবিধানিক পদে বসে জনগণের সাংবিধানিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করার জন্য আজ হোক আর কাল হোক আপনাদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।

আরও পড়ুন:  বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেয়া রাজনীতির জন্য শুভ সংবাদ

তিনি আরো বলেন, আমাদের প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেছেন যত বাঁধা আসুক, যত বিপত্তি আসুক আমরা নির্বাচনের শেষ দিন পর্যন্ত মাঠে থাকবো। আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ শরীরের সব রক্ত ঢেলে দিবেন কিন্তু নির্বাচনের মাঠ ছেড়ে আপনারা কেউ চলে যাবেন না।

এসময় ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, এই নির্বাচন গণতন্ত্র রক্ষার নির্বাচন, এ নির্বাচন বেগম খালেদা জিয়ার নির্বাচন, এই নির্বাচন তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার নির্বাচন। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এখান থেকেই আন্দোলনের ডাক দিবো।

তিনি নির্বাচন কমিশনকে হুঁশিয়ার করে বলেন, আপনারা সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেন, না হয় এদেশের জনগণ আপনাদের বিচার করবে।

এর আগে বেলা ১২ টায় যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে দিয়া অনুষ্ঠান শুরু করে সায়দাবাদ, ধলপুর নতুন রাস্তা, গোলাপবাগ স্টোডিয়াম মার্কেট, সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল, সায়দাবাদ জানপদ এর মোড় হয়ে ৪৮ ও ৪৯নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে আবার যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে এসে শেষ হয়।

আরও পড়ুন:  দেশে এখন চলছে সরকারী প্রতিহিংসার প্রবল প্রতাপ : বিএনপি মহাসচিব

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ সভাপতি আতিকুল্লাহ আতিক, সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন, সহ সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন ভূঁইয়া নান্টু, প্রচার সম্পাদক আব্দুল হাই পল্লব, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি আনোয়ার হোসেন সর্দার, ডেমরা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম বাদল, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান ভাণ্ডারী, ডেমরা থানা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাসুম দেওয়ান, মোফাজ্জল হোসেন ভূঁইয়া, সহ সম্পাদক হাফেজ মাহবুব, সহ যাত্রাবাড়ী-ডেমরা থানা বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের শতাধিক নেতাকর্মী।
নিউজটি পড়া হয়েছে 22 বার

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 51
    Shares