প্রচ্ছদ বাংলাদেশ শিক্ষাঙ্গন

এবার বুয়েট শহীদ মিনার থেকে মুছে ফেলা হলো ছাত্রলীগের নাম

122
পড়া যাবে: < 1 minute

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হ’ত্যাকা’ণ্ডে’র পর আন্দোলন শুরু করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। তাদের আন্দোলনের মুখে বুয়েটে সব ধরনের সাংগঠনিক রাজনীতি নি’ষিদ্ধ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ হ’ত্যাকা’ণ্ডে জ’ড়িত সন্দেহে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগে সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকসহ বেশ কিছু নেতাকর্মীকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে।

এবার বুয়েটের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ফলকে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত ডিজিটাল ব্যানারের নিচে লেখা ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগ’ থেকে ‘ছাত্রলীগ’ শব্দটি সাদা রং দিয়ে মুছে দিয়েছে অজ্ঞাত কেউ বা কারা। কে বা কারা ছাত্রলীগের নাম মুছে দিয়েছে সে সম্পর্কে নিশ্চিতভাবে কেউ কিছু বলতে পারেননি।

আরও পড়ুন:  বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হ*ত্যাকা*ন্ডে ছাত্রলীগ জড়িত নিয়ে যা বললেন গোলাম রাব্বানি

কেউ কেউ মনে করছেন ভর্তি পরীক্ষার সময় আসা শিক্ষার্থীদের কেউ এ কাজ করতে পারেন। আবার কেউ কেউ মনে করছেন, বুয়েট ক্যাম্পাসেরই ছাত্রলীগের ওপর বিক্ষুধ্ব কেউ এ কাজটি করেছে।খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত দু’বছর আগে বুয়েট প্রশাসনের উদ্যোগে শহীদ মিনার তৈরি করা হয়। সেখানে নিজেদের অবস্থান জানান দিতে ফলকের মধ্যে ব্যানার লাগিয়ে দেয় ছাত্রলীগ।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হল থেকে আবরার ফাহাদের ম’রদে’হ উদ্ধার করা হয়। ওই রাতে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে পি’টিয়ে হ’ত্যা করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা। পরের দিন সন্ধ্যার পর চকবাজার থানায় একটি হ’ত্যা মা’মলা করেন আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২০ জনকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৬ জন এ’জাহারনামীয় আ’সামি।

আরও পড়ুন:  উত্তপ্ত বুয়েট,‘হই হই রই রই ভিসি স্যার গেল কই’ শ্লোগান ,ভিসির তালবাহনায় ভিসিকে তালাবদ্ধ

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 145
    Shares