প্রচ্ছদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

কেন কিনবেন অপো এফ১৭

11
কেন কিনবেন অপো এফ১৭
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

সম্প্রতি সময়ে মার্কেটে চলে এসেছে অপো এফ১৭ এবং এই নিয়ে টেকপ্রেমী দের মধ্যে বেশ তোড়জোড় চলছে। বিভিন্ন টেকপ্রেমী ইউটিউবার এবং ব্লগাররা সম্প্রতি সময়ে এ নিয়ে নানা ধরনের রিভিউ প্রদান করছে৷ তবে এমন বেশ কিছু কারণ রয়েছে যেগুলো আমাদের সকলের অগোচরে থেকে যায় । ফোনটি কেনার বেশকিছু যুক্তিসংগত কারণ রয়েছে। এবং তার পাশাপাশি না কেন কিছু কারণ রয়েছে। তবে এই আর্টিকেলে আপনারা জানেন কেন কিনবেন অপো এফ১৭ ফোনটি?

শুরুতে যে কারণে রয়েছে সেটি হচ্ছে এই ফোনের ব্যাক পার্টে দেওয়া হয়েছে এক অসাধারণ গ্লোরিয়াস ফিনিশিং। যার কারণে ফোনটি দেখতে খুব চমৎকার লাগে। আপনি যখন হাতে নিয়ে ফোনটি ব্যবহার করবেন তখন দেখবেন খুবই প্রিমিয়ার লাগছে!

আর এই ফোনটি খুব স্লিম। মাত্র ৭.৮ মিলিমিটার এর ফিটনেস । বেশ ভালো ভাবে ওয়েট ডিস্ট্রিবিউটকরার কারণে ফোনটা হাতে নিয়ে বেশ কম্ফোর্টেবল ফিল হয়৷

ফোনটি কেনার দ্বিতীয় যে কারণে রয়েছে সেটি হচ্ছে এর আকর্ষণীয় ডিসপ্লে। এই ফোনের ডিসপ্লেটি ৬.৪৩ ইঞ্চির একটি এমোলেড ডিসপ্লে। ডিসপ্লেটির খুব একটা বড় না আবার খুব ছোটও না। অনেকেই রয়েছে যারা মাঝারি সাইজের ডিসপ্লে খুব বেশি পছন্দ করে। থাকে তাদের জন্য এই ফোনটি একদম পারফেক্ট!

আরও পড়ুন:  কিভাবে তৈরি করবেন ফেসবুক রুম?

তৃতীয় যে কারণটি হচ্ছে সেটি হচ্ছে এর ক্যামেরা৷ বরাবরের মতো অপো তাদের ক্যামেরার দিকে বেশি নজর দিয়েছে । এই ফোনের সামনের দিকে রয়েছে দুটি ক্যামেরা। এবং পেছনের দিকে রয়েছে মোট চারটি ক্যামেরা। এই নিয়ে অপো এফ১৭ ফোনটিতে মোট ছয়টি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে । পেছনের দিকে রয়েছে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। এবং এর প্রাইমারি ক্যামেরাটি ৪৮ মেগাপিক্সেল । সামনের দিকে রয়েছে ১ টি সিক্সটিন মেগা পিক্সাল সেলফি ক্যামেরা । যেটা একদম সোশ্যাল মিডিয়ার রেডিমেড। আরো একটি ক্যামেরা রয়েছে যেটি মাত্র ২ মেগাপিক্সেলের। ক্যামেরার পারফরম্যান্সের কথা বলতে গেলে আমার কাছে এভারেজ লেভেলের লেগেছে। তবে অন্য রিভিউয়ারদের কাছে এটা বেশ ভালো লেগেছে।

সত্তিকারের কথা বলতে ক্যামেরা দিয়ে ডেলাইট সকল ধরনের ছবি তোলা যাচ্ছিল। লাল এবং বেগুনি রঙের ছবি তুলতে সমস্যা হচ্ছিল। ঠিকমত ফোকাস করতে পারেনি । শুধু লাল এবং বেগুনের নয় তার পাশাপাশি যেকোনো গাড়ো রং এর ছবি তুলতে গিয়ে সমস্যা হয়েছে। স্বল্প আলোতে বেশ ভালো পারফরম্যান্স করেছে বলা চলে।

 

তবে সবচেয়ে চমকপ্রদ ব্যাপার ছিল ক্যামেরাটি একদম সোশ্যাল মিডিয়া রেডিমেড। যার কারনে ছবি তুলে তা সরাসরি ফেসবুকে আপলোড করা যেতে পারে৷

ক্যামেরা ডিফল্ট অপশন গুলোতেই আপনি এডিট করতে পারবেন । যদিও বা এডিট করার খুব একটা প্রয়োজন হয় না।

আরও পড়ুন:  ভিভো স্মার্টফোনে ঈদ অফার

পরিশেষে এটুকুই বলবো ক্যামেরার পারফরম্যান্স এভারেজ হলেও এর ইমেজ প্রসেসিং সিস্টেম টা আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে।

চতুর্থ যে কারণটি রয়েছে সেটি হচ্ছে এর গেমিং পারফর্মেন্স ।

যদিও অফিশিয়ালি বলা হয়েছে গেম পারফর্মেন্স এর দিকে ফোনটি কতটা নজর দেয়নি৷ তার পরেও আমার কাছে হেভি গেম গুলো অর্থাৎ পাবজি, পাবজি মোবাইল, ফ্রি ফায়ারএ ধরনের গেম গুলো খেলতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ হয়েছে। গেমটিতে যে সব ডিফল্ট গ্রাফিক্স সেটিংস দেওয়া থাকে তাতে খুব স্মুথলি খেলা যাচ্ছিল। এটা ব্যবহার করা হয়েছে ৬০ হার্জ রিফ্রেশ প্যানেল যার কারণে সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট সহ অন্যান্য ওয়েবসাইট ব্রাউজ এর কোন অসুবিধা হচ্ছিল না৷

পরিশেষে ফোনটি যেকোনো ইউজারের মন জয় করে নিতে সক্ষম৷। বিশেষ করে এর ডিজাইন, ক্যামেরা এবং আকর্ষণীয় ডিসপ্লে থাকার কারণে একজন ব্যবহারকারী যখনই ফোনটি হাতে নেবে তখন নিজের মধ্যে এক ধরনের আত্মবিশ্বাস কাজ করবে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares