29 C
Dhaka
রবি আগস্ট ১৮, ২০১৯, ৩:০৫ পূর্বাহ্ন.
প্রচ্ছদ ব্লগ সংবাদ পেজ 3

কোরবানির সময় ক*সাইয়ের হাতে থাকা চা*পাতি ছুটে গিয়ে প্রা*ণ গেল শিশুর

পড়া যাবে: 3 মিনিটে

কোরবানির সময় চাপাতি ফসকে মৌমিতা আক্তার (১০) নামে এক শিশুর মৃ*ত্যু হয়েছে। আজ সোমবার মাদারীপুরে সদর উপজেলার দুধখালী ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, বাড়ির উঠানে গরু কোরবানি করছিল কসাই। অন্য শিশুদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে তা দেখছিল মৌমিতা। এ সময় গরু নাড়াচাড়া করায় কসাইয়ের হাতে থাকা চা*পাতি ফসকে গিয়ে তার পে*টে ঢু*কে যায়। এতে তার মৃ*ত্যু হয়।

মৌমিতা দুধখালী ইউনিয়নের উত্তর দুধখালী বড়কান্দি গ্রামের আনোয়ার বেপারীর মেয়ে। সে দুধখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গুরুতর আ*হত অবস্থায় মাটিয়ে পড়ে যায় মৌমিতা। পরে বাড়ির লোকজন তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃ*ত ঘোষণা করেন।

দুখখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য নাসির উদ্দিন বেপারী বলেন, ‘গরুটি দাপাদাপি করছিল। এ সময় কসাইয়ের হাতে থাকা ছু*রি ছুটে গিয়ে মৌমিতার পে*টে ঢু*কে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃ*ত্যু হয় ওই শিশুটির।’

মাদারীপুর সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সিরাজুল হক সরদার জানান, পুলিশ হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নি*হতের পরিবার থেকেও কোনো অভিযোগ দেয়নি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

কাশ্মীর সীমান্তে বড়সড় বিমান হা*মলা চালানোর জন্য প্রস্তুত পাকিস্তানের বিমান বাহিনী

পড়া যাবে: 3 মিনিটে

ভারত-পাকিস্তানের চলমান উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে যু*দ্ধের আশঙ্কা উসকে দিয়ে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর যু*দ্ধবিমান মোতায়েন করছে পাকিস্তান। সীমান্তের ওপারে লাদাখ লাগোয়া স্কারদু বিমান বাহিনী ঘাঁটিতে চীন নির্মিত জেএফ-১৭ ফা*ইটার জেট পাঠাচ্ছে পাকিস্তান। শুধু তাই নয়, গত শনিবার রাত থেকেই প্রচুর পরিমাণ অ*স্ত্র ও কা*মান নিয়ে পাকিস্তানের সেনারা কাশ্মীর সীমান্তে জড়ো হচ্ছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের লাদাখ সীমান্ত লাগোয়া পাকিস্তান সেনঘাঁটিগুলিতে সক্রিয়তা উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে গেছে। গত শনিবার থেকেই স্কারদু বিমানঘাঁটিতে একাধিকবার অবতরণ করেছে পাকিস্তান বিমানবাহিনীর সি-১৩০ পণ্য পরিবহণকারী বিমান। ভারতের সঙ্গে ‘ফরওয়ার্ড বেস’ গু*লিতে যু*দ্ধের জন্য রসদ মজুত করছে পাকিস্তানি সেনা।

গোয়েন্দারা আরও মনে করছেন, ওই ঘাঁটিগুলি থেকে বড়সড় বি*মান হা*মলা চালানোর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তানের বিমান বাহিনী। তবে ভারতীয় সেনার পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হয়েছে, পাকিস্তানি সেনার গতিবিধি বাড়লেও চিন্তার কিছু নেই। তাদের সমস্ত গতিবিধি ভারতীয় রাডারে স্পষ্ট ধরা পড়ছে। ফলে কোন ধরনের বাড়াবাড়ি করলে পাকিস্তানকে যোগ্য জবাব দেওয়া হবে।

এদিকে, ঈদ ও স্বাধীনতা দিবসের মধ্যে জ*ঙ্গি হা*মলা হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে গো*য়েন্দাদের পক্ষ থেকে। এর মধ্যে শনিবার রাত থেকে কাশ্মীর সীমান্তে ইমরান সরকার বিপুল পরিমাণ অ*স্ত্র-সহ প্রচুর সেনা পাঠাচ্ছে বলে জানা যায়। রবিবার টুইট করে মারাত্মক এই দাবি করেন পাকিস্তানের সাংবাদিক হামিদ মীর।

তাঁর দাবি, ‘‘কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তান সরকার সেনার সংখ্যা বাড়াচ্ছে বলে খবর দিয়েছেন তার কাশ্মীরি বন্ধুরা। শনিবার রাত থেকেই প্রচুর পরিমাণ অ*স্ত্র ও কা*মান নিয়ে পাকিস্তানের সেনাকর্মীরা কাশ্মীর সীমান্তে জড়ো হচ্ছে। আর তাদের দেখে পাকিস্তানের পতাকা নাড়িয়ে অভিনন্দন জানাচ্ছে স্থানীয় কাশ্মীরি। মুখে স্লোগান দিচ্ছে – কাশ্মীর বন গ্যায়া পাকিস্তান।’’

এই টুইটের কথা প্রকাশ্যে আসতেই ভারতের পক্ষ থেকে নজরদারি চালানো হচ্ছে সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায়। বাড়ানো হয়েছে সেনা সদস্যদের সংখ্যাও। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের দেওয়া ঈদের মিষ্টি ফিরিয়ে দিল পাকিস্তান

পড়া যাবে: 4 মিনিটে

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের দেওয়া ঈদের মিষ্টি ফিরিয়ে দিল পাকিস্তান৷ প্রথা মেনেই আটারি-ওয়াঘ সিমান্তে সোমবার ঈদের উপহার হিসেবে মিষ্টি নিয়ে হাজির ছিলেন বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের জওয়ানরা৷ কিন্তু বিএসএফ জওয়ানদের দেওয়া মিষ্টি ফিরিয়ে দেয় পাকিস্তানি রেঞ্জার্স৷

কাশ্মীরের উপর থেকে আর্টিকল ৩৭০ তুলে নেওয়ার পর থেকে ভারতের বিরোধীতা করে অসহযোগিতার পথে হাঁটে পাক সরকার৷ দু’দেশের মধ্যে ট্রেন্ট ও বাস চলাচলও বন্ধ করে দেয় ইমরান খানের সরকার৷ বন্ধ করে দেওয়া হয় দু’দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক৷ শুধু তাই নয়, কাশ্মীর ইস্যুতে মোদী সরকারের বিরোধীতা করে ইসলামাবাদে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে ফেরত পাঠিয়ে দেয় পাকিস্তান৷ দিল্লি থেকেও পাক রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফিরিয়ে নেয় ইমরান খানের সরকার৷

এদিন ঈদ উৎসবেও দুই প্রতিবেশী দেশের সম্প্রতিতেও বাধা হয়ে দাঁড়ায় পাকিস্তান৷ আটারি-ওয়াঘা সীমান্তে নিযুক্ত এক সিনিয়র বিএসএফ অফিসার জানান, ‘সোমবার পাকিস্তান রেঞ্জার্সের সঙ্গে আমাদের কোনও মিষ্টি দেওয়া নেওয়া হয়নি৷’ সম্প্রতি কাশ্মীর ইস্যুতে দু’দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি এমনটা সম্ভব হয়নি বলেও জানান তিনি৷ তবে ভারতের তরফে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল বলেও জানান বিএসএফ-এর ওই আধিকারিক৷ তিনি বলেন, ‘রবিবারই আমার ঈদের মিষ্টি দেওয়ার প্রস্তাব পাঠিয়েছিলাম৷ কিন্তু পাক রেঞ্জার্সের তা নিতে অস্বীকার করে৷’

প্রথা মেনেই ঈদে বিএসএফ-এর তরফে পাকিস্তান রেঞ্জার্সকে মিষ্টি দিয়ে সম্প্রতির বার্তা দেওয়া হয়৷ এবারও প্রস্তুত ছিল বিএসএফ৷ কিন্তু পাকিস্তানের তরফে কোনও সাড়া মেলেনি বলে জানান বিএসএফ-এর অমৃতসর সেক্টরের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল জেএস ওবেরয়৷

শুধু ঈদ নয়, দুই দেশের জাতীয় উৎসব যেমন দেওয়ালি, ঈদ, স্বাধীনতা দিবস এবং প্রজাতান্ত্রিক দিবসেও আটারি-ওয়াঘা সীমান্তে দেশের মধ্যে সম্প্রতির বার্তা হিসেবে মিষ্টি ও উপহার দেওয়ার রীতি রয়েছে৷ কিন্তু গত সোমবার মোদী সরকার জম্মু-কাশ্মীর থেকে আর্টিকল ৩৭০ তুলে নেওয়ার প্রতিবাদে ভারতের সঙ্গে সব সম্পর্ক বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয় ইমরান খানের সরকার৷ এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

ঈদের পর ১৪ ও ১৫ অগস্ট যথাক্রমে পাকিস্তান ও ভারতের স্বাধীনতা দিবসে সম্প্রতির বার্তা থেকে দূরে থাকতে চলেছে দুই দেশ৷ তবে এটাই প্রথমবার নয়, সীমান্তে সিজ ফায়ার চালানোর প্রতিবাদে গত বছর প্রজাতন্ত্র দিবসেও পাক রেঞ্জার্সের সঙ্গে মিষ্টির আদানপ্রদান করেনি বিএসএফ৷ তার আগে ২০১৬ ভারতীয় সেনা পাকিস্তান অধ্যুষিত কাশ্মীরে আতঙ্কবাদ ধ্বংসের জন্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালানোর পর দিওয়ালিতেও মিষ্টি আদান-প্রদান বন্ধ করে৷

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

‘আপনার কোরবানীর পশুর চামড়া নিকটস্থ সিন্ডিকেট ও এতিমের হক নষ্টকারীদের দান করুন’

পড়া যাবে: 2 মিনিটে

পবিত্র ঈদুল আজহার কোরবানির পশুর চামড়া নিয়ে সারাদেশে তৈরী হয়েছে সিন্ডিকেট। সারাদেশ থেকে কোরবানির পশুর চামড়া দাম একেবারেই কম হওয়ার অভিযোগ করেছে বিক্রেতা ও ছোট ব্যবসায়ীরা। এছাড়াও এলাকা ভিত্তিক এক শ্রেণীর যুবক নিজেদের এলাকার লোক দাবি করে সামান্য টাকা দিয়ে জোর করে চামড়া নিয়ে যাওয়ারও অভিযোগ রয়েছে।

রাজধানীর পুরান ঢাকার রাজীব নামে একজন অভিযোগ করে  বলেন, ‘আমার গরুর চামড়া আমি মাদরাসায় দান করতে চেয়েছিলাম কিন্তু এলাকার কিছু ছেলে এসে মাদরাসার ছাত্রদের তাড়িয়ে দিয়েছে। আর আমার হাতে ৩০০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে আমার গরুর চামড়া নিয়ে গেছে।’

এদিকে কুমিল্লায় গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২৫০ টাকায়। আর ছাগলের চামড়ার ক্রেতাই পাওয়া যাচ্ছে না। নূরনবী বাবু নামে একজন  বলেন, চামড়া বিক্রি করে এতিমখানায় টাকা দেব ভেবেছিলাম কিন্তু বাজারে এসে পড়লাম বেকায়দায়। ছাগলের চামড়ার কোনো ক্রেতাই নেই। উল্টো চামড়া রাখার জায়গা পরিষ্কারের জন্য টাকা চাওয়া হচ্ছে।

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, চামড়ার টাকা গরীবরা পায়। অথচ এ চামড়া নিয়ে সিন্ডিকেট তৈরি করা হয়েছে। এর মাধ্যমে গরীবকেই বঞ্চিত করা হচ্ছে। এটা মেনে নেয়া যায় না।

শাহ আলম নামের একজন চামড়া ব্যবসায়ী বলেন, ৩০০ টাকা দিয়ে বাড়ি-বাড়ি গিয়ে চামড়া কিনে আনলেও সে চামড়ার দাম উঠেছে মাত্র ২০০ থেকে ২৫০ টাকা। চামড়ার এ নজিরবিহীন মূল্যহ্রাস দেখে আমি খুবই হতাশ।

এছাড়া রাজশাহীর বাঘায় ১০ টাকা দরে প্রতিটি ছাগলের চামড়া বিক্রি হয়েছে। এ বিষয়ে আড়ানী গোচর গ্রামের ফড়িয়ার চামড়া ব্যবসায়ী আরিফুর রহমান বলেন, চাহিদা না থাকায় বকরি ছাগলের একটি চামড়া ১০ টাকা দরে ক্রয় করছি। এ দামে কিনে নিয়ে স্থানীয় আড়তে বিক্রি করব। পরিবহন খরচ বাদ দিয়ে একটি ছাগলের চামড়ায় দুই টাকা লাভের আশা করছি।

আড়ানী গোচর গ্রামের সমাজ প্রধান আকরাম আলী বলেন, চামড়ার কোনো চাহিদা নেই। কোরবানির পশুর চামড়া কেউ কিনতে চাচ্ছিল না। অবশেষে স্থানীয় একজন ফড়িয়ার এসে খাসি ছাগলের চামড়া প্রতিটি ৫০ টাকা আর বকরি ছাগলের চামড়া ১০ টাকা দরে বিক্রি করেছি। গত বছর যে দাম ছিল তার চেয়ে দ্বিগুন দাম কমে চামড়া বিক্রি করেছি।

আড়ানীর চামড়া আড়তদার ইলিয়াস হোসেন বলেন, চাহিদা না থাকায় চামড়া কম দামে নিতে হচ্ছে। এ চামড়া কিনেও লাভ হবে কিনা জানা নেই। তারপরও কিনছি। ফড়িয়ারদের কাছে দুই/এক টাকা বেশি দিয়ে চামড়া কিনছি। এছাড়াও সমাজ প্রধানের প্রতিনিধিরা চামড়া নিয়ে আসছেন। তাদেরও কাছে থেকে ফড়িয়ারদের মতো দাম দিয়ে কিনছি।

এসব সিন্ডিকেট তৈরী হওয়ায় আজ সোমবার (১২ আগস্ট) নিজের ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন বিশিষ্ট আইনজীবী ড. তুহিন মালিক। তার স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘আপনার কোরবানীর পশুর চামড়া নিকটস্থ সিন্ডিকেট ও এতিমের হক নষ্টকারীদের দান করুন’ !!!

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

ঈদগাহ মাঠে ১৪*৪ ধা*রা জারি !

পড়া যাবে: 1 minute

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল ও কালিহাতী উপজেলার সীমান্তবর্তী দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ঈদের নামাজকে কেন্দ্র করে সং*ঘাতে*র আশঙ্কায় ঈদগাহ মাঠ এলাকায় ১৪*৪ ধা*রা জারি করেছে প্রশাসন। অ*প্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ঈদের দিন সোমবার (১২ আগস্ট) ঘাটাইল উপজেলার ভোজদত্ত ঈদগাহ মাঠে ১৪*৪ ধা*রা জারি করেন টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাইদুর রহমান।

ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘ঘাটাইল ও কালিহাতী উপজেলার সীমান্তবর্তী ভোজদত্ত ঈদগাহ মাঠে নামাজ পড়া নিয়ে ভোজদত্ত ও বীরবাসিন্দা দুই গ্রামের লোকজনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বি*রোধ চলে আসছে।

এ অবস্থায় দুই গ্রামের লোকজনের একই স্থানে নামাজ আদায়কে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কা রয়েছে। এজন্য সেখানে ১৪*৪ ধা*রা জারি করা হয়েছে। এই আদেশ সোমবার ভোর ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।’

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

দেশবাসীকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুশফিকুর রহিম

পড়া যাবে: 1 minute

দেশবাসীকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের উইকেরক্ষক ও ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। আজ রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে নিজের পরিবারের একটি ছবি পোস্ট করে এ শুভেচ্ছা জানান তিনি।

ফেসবুক পোস্টে মুশফিক লেখেন- সবাইকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা। ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে উৎসব। ঈদ মানে সাম্য। ঈদ মানে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া। ক্ষুদ্রতার ঊর্ধ্বে ওঠার চেষ্টা। বৃহতের সঙ্গে যুক্ত হওয়া।

ঈদুল আজহার এই আনন্দঘন মুহুর্তে মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা তিনি যেন আমাদের সকল ইবাদাত, ত্যাগ, কোরবানি কবুল করে নেন, আমাদের গুনাহসমূহ ক্ষমা করে দেন এবং পশু কোরবানির মাধ্যমে অর্জিত প্রিয় ও মুল্যবান ঈমানী জজবা আল্লাহর রাস্তায় ব্যায় করার শিক্ষায় আমাদের জীবন পরিচালিত করেন ইনশাল্লাহ। আমার পরিবারের পক্ষ থেকে দেশবাসী সবাইকে পবিত্র ঈদ- উল-আজহা এর শুভেচ্ছা।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

ঈদের সকালে ট্রাক উল্টে দুই গরু ব্যবসায়ী নি*হত

পড়া যাবে: 1 minute

মানিকগঞ্জের ঢাকা-আরিচা মহসড়কের পুখরিয়া এলাকায় ট্রাক উল্টে দুই গরু ব্যবসায়ীর নি*হত হয়েছেন। আজ সোমবার সকাল ৬টার দিকে এই দুর্টনাটি ঘটে। এ ঘটনায় আ*হত হয়েছেন অন্তত সাত জন।

দু*র্ঘটনায় নি*হতরা হলেন- কুষ্টিয়া জেলার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার উজান গ্রাম এলাকার দাউদ আলীর ছেলে উজুল আলী (৪০) এবং একই এলাকার হাউজ আলীর ছেলে মনোয়ার হোসেন মানু (২৫)।

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম জানান, ভোরে গাবতলী থেকে কুষ্টিয়াগামী একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ওই ট্রাকের নিচে পড়ে দুই গরু ব্যবসায়ীর মৃ*ত্যু হয়। এ ঘটনায় আ*হত সাত জনকে নিকটস্থ হাসপাতালে পাঠানো হয়। নি*হতদের ম*রদেহ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে।

ট্রাকে থাকা সবাই গাবতলী থেকে গরু বিক্রি করে বাড়ি ফিরছিলেন বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

হকারের থালাভরা ছোট ছোট স্বপ্নকে মেঘনার পানিতে চুবিয়ে দিলেন পুলিশ

পড়া যাবে: 6 মিনিটে

মনটা গতকাল সারাদিনই খারাপ লাগছিলো নীচের দৃশ্যগুলো এবং বর্ণনা শুনে! মনে প্রশ্ন ছিলো এও কী সম্ভব? কী করে সম্ভব? আবার উত্তরও জানা ছিলো এ দেশের কিছু পুলিশের দ্বারা এটা মামুলি বিষয়!

কি করলেন তিনি এটা? একজন ছোট হকারের থালাভরা ছোট ছোট স্বপ্নকে মেঘনার পানিতে চুবিয়ে দিলেন? হকার উচ্ছেদ করলেন? দখলদারমুক্ত করলেন টার্মিনাল? লন্চ স্টেশনে এখনো ৫ শ অবৈধ দোকান দাঁড়িয়ে আছে মি: নৌ পুলিশের এ এস পি ইসমাইল সাহেব! তাও আপনার নৌ ফাড়ির চারদিক ঘিরে! একটা ধাক্কাও ঐ দোকানগুলোতে লাগাতে পেরেছেন? পারেননি। পারছেন,মাত্র ৪/৫ বা তারও কম টাকার পূঁজির একজন নজরুলের থালায় রাখা আমড়া পানিতে ফেলতে! তাকে মারতে! ছি:! এই আপনাদের মতো পুলিশরাই পুরো পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি নষ্ট করতে যথেষ্ট।!

স্বল্প কিছু আগে পুলিশের একজন উর্ধ্বতনের সাথে কথা হচ্ছিলো আমার। ভদ্রলোক অতিশয় ভালো মানুষ। এ বিষয়ে প্রশ্ন ছিলো তার কাছে। মনে হলো ব্যাপারটিকে তিনি কোন ভাবে ভালো চোখে দেখছেন না! বল্লেন ভাই! এ পুলিশ নৌ পুলিশ! আমাদের স্থল পুলিশ নয়! এবং ইসমাইল নামের সহকারী পুলিশ সুপার প্রমোটি! অর্থাৎ বিসিএস ক্যাডার হয়ে সে চাকরিতে ঢুকেনি।

সে এস আই পদ থেকে আসছে প্রমোশন পেয়ে। এক সময় হয়তো থানার ওসি গিরিও করেছে।তখন আমি স্পষ্ট হলাম যে, তার দ্বারা এই আচরণ অসম্ভববের কিছুই না! আবার বিসিএস করা ২/৪ উর্ধ্বতন যে এমন নয়, তাও বলছি না! গাজীপুরের সাবেক এসপি বা চট্টগ্রামের বৃদ্ধ জনপ্রিয় সাংবাদিককে পেটাতেও এক উর্ধ্বতনকে দেখেছি!

কিন্তু সংখ্যায় এরা সব মিলে আসলেও কম! কিন্তু ঐ যে! খাঁচি ভরা ফলে ১/২ টা আম যখন খারাপ থাকে আর সেগুলো যদি ভালোর সাথে বা মাঝে রাখা হয়, তাহলে ১/২ দিন বাদেই দেখা যায় খাঁচির পুরো ফলই নষ্ট হয়ে গেছে বা পঁচে গেছে। তাই ওই ফলগুলো আগে থেকেই ফেলে দেয়া ভালো! ঠিক একই রকম আমাদের পুলিশে!

এখন ফেলবে কে? অবশ্যই বসেরা! আর বস্ কে? নিশ্চয় ই পুলিশ সুপার, ডিআইজি নয়তো এর উপরের কেউ?

হ্যাঁ, চাঁদপুরের নৌ পুলিশ সুপার নবম বিসিএসে এর একজন! পদবী এক হলেও যিনি আমাদের চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার জিহাদুল কবিরের ১০/ ১১ ব্যাচ সিনিয়র! মানে অনেক অনেক বড় ভাই! যিনি ডিআইজি ডিঙ্গিয়ে আরো উপরের অফিসার থাকার কথা ছিলো! কি কারণে হননি, সে কারণ আমার কাছে অজ্ঞাত!

আজ সেই সিনিয়রের কাছে জানতে ইচ্ছে করে – আপনি কী এটির জন্য তদন্ত কমিটি করেছেন? তাক কি প্রত্যাহার করেছেন? বেটা নজরুলের কাছে দাঁড়িয়েছেন? কিংবা তাকেই দোষী বানিয়ে জেলে পাঠিয়েছেন?

না তা করেননি!! কিন্তু আপনার তা করা উচিত ছিলো- যদি নিজেকে সত্যিকার সেবক মনে করতেন। অথচ ইতিমধ্যে বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল!! নজরুলকে স্বান্তনা দিতে, সাহায্য করতে এরই মধ্যে অনেকে গেছে। আপনার সেই অফিসারও যেতে পারতো। যাইনি! কারণ তার মানুষত্বের অনুভূতিগুলো নুসারতদের দেশের সেই ওসি মোয়াজ্জেমদের মতো!

নজরুলদের দোষের কোন শেষ নেই! কারণ তারা অবৈধ হকার! আমড়া খাওয়ায় যাত্রীদের, নোংরা করে ঘাট! যাত্রীদের যন্ত্রনা করে! তবে আজও অবদি শুনিনি একজন আমরা, চিরুনি, পেপার বিক্রেতা লন্চঘাটে যাত্রীদের হয়রানি করেছে, শুনিনি চুরি করেছে, শুনিনি ঘাট দখল করেছে।শুনিনি সরকারি জাহাজে তেল বিক্রি করে দিতে, শুনিনি অবৈধ নৌযান চলাচলে সুযোগ করে দিতে। বরং শুনেছি, টাউট বাটপার এলাকার মাস্তান চাঁদাবাজ, ধান্দাবাজ রাজনীতিক কিছু নাম বিক্রি করে শক্তি সামর্থ নিয়ে নৌ পুলিশকে সংগে নিয়ে লন্চঘাট এলাকা বেশ জমজমাট আছে!?

আমি এই ঘটনার নিন্দা জানাই একজন সংবাদকর্মি হিসাবে তো বটেই, চাঁদপুরের একজন নাগরিক হিসাবেও ঘৃনা করি।

আমি দাবি রাখবো – চাঁদপুরের কৃতি সন্তান পুলিশের আইজি মহোদয়ের কাছে যে, শুধু তাকেই নয়, নৌ এসপি সহ এখানের পুরো নৌ টিমকে প্রত্যাহার করে নিতে। আপনি শুধু পুলিশ প্রধানই নন! একজন সৎ, যোগ্য দক্ষ পুলিশ কর্মকর্তা। তার উপর আপনার আরেক পরিচয়, আপনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যানের মেধাবী ছাত্র, আপনার সহধর্মিণীও তাই। আমিও সামাজিক বিজ্ঞানের ছাত্র হিসাবে এই অসভ্যতাকে মেনে নিতে পারছি না! কারণ সমাজ বিজ্ঞানে এসব অন্যায়ের স্থান নেই! আর আপনার পুলিশের চাকরি বিধিতেও না! আপনার আপনাদের অনেক অর্জন। কেউ তা স্বীকার করলো কি না করলো তা আমার কিছু যায় আসে না। আবার উল্টোটা হচ্ছে আপনাদের ভালো কিছু অর্জন ইসমাইল, মিজান, মোয়াজ্জেম বা নিখিলরা ম্লান করে দেয়ার চেষ্টা করে। একটা দুইটা এসপি শামসুন্নাহার, জিহাদ, সদ্য এসপি প্রমোশন পাওয়া চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পারভেজ চৌধুরীসহ অনেক ভালো দক্ষ, সৎ অফিসার আছে বলেই বোধহয় আমরা সাধারনরা ভালো আছি।!

ভাই নজরুল তোমাকে বলছি- আক্কল থাকলে আর এ ব্যবসা করো না! বরং ছেলে মেয়েকে লেখাপড়া করাও! অন্য বয়বসা করো। সবশেষ আল্লাহর কাছে চাও – হে আল্লাহ আমার একটা অন্তত: তুমি এমন অফিসার বানাও যে, আমার মতো অসহায়ের ব্যবসায়ের থালাটা নদীতে না ফেলে তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করে – সে চচিন্তায় বিভোর থাকে। আমি দোয়া করি ভাই তোমার জন্যে। ভালো থাকো। আর এমন দৃশ্য যেন আল্লাহ না দেখায়।

বিশেষ অনুরোধ: আমার এই পোষ্টটিতে যারাই কমান্ড করবেন, তারা এটিকে কোন ভাবেই রাজনীতিক বা পুরো পুলিশ বাহিনীর প্রতি অযথা ঘৃনা ছোঁড়ে মন্তব্য করবেন, নিন্দা করবেন তাদের যারা এই অফিসারদের মতন তাদের! পরামর্শ এবং দাবি বা বিচার অর্থে লিখবেন। অশ্লিল কোন বাক্য ছোঁড়ার দরকার নেই! [ফেসবুক স্ট্যাটাস]

লেথক: সাংবাদিক, দৈনিক সমকাল

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

ঈদের নামাজ শেষে ফিলিস্তিনের আল আকসায় ইসরায়েলি পুলিশের হা*মলা

পড়া যাবে: 1 minute

ফিলিস্তিনের একটি মসজিদে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করতে যাওয়া মুসল্লিদের ওপর হা*মলা চালিয়েছে ইসরায়েলি পুলিশ। স্ট্যান গ্রে*নেড ও টি*য়ার গ্যা*স ছোঁড়ায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন মুসল্লি। তবে নি*হতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। আজ রোববার দেশটির অধিকৃত বায়তুল মুকাদ্দাস শহরের পবিত্র আল আকসা মসজিদে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম হার্তেজ জানিয়েছে, রোববার সকালে ওই মসজিদে জামাত শেষ হওয়ার পর ইসরায়েলি পুলিশ বাহিনী মুসল্লিদের ওপর স্ট্যান গ্রে*নেড ও টি*য়ার গ্যা*স ছোঁড়ে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন মুসল্লী। তা ছাড়া কয়েকজন মুসল্লিকে আ*টকও করেছে ইসারায়েলি পুলিশ। কী কারণে মসজিদে হা*মলা চালানো হয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়।

ফিলিস্তিনের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানিয়েছে, হামলায় আ*হত কয়েকজন মুসল্লীকে তারা চিকিৎসা দিয়েছে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত

পড়া যাবে: 1 minute

রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ৭টায় এ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। জামাতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররম মসজিদের পেশ ইমাম মুফতী মাওলানা মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে সকাল ৮টায় আরও একটি জামায়ত শুরু হয়েছে। এ জামাতে ইমামতি করছেন একই মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মুফতী মুদীউদ্দীন কাসেম। এ ছাড়া ৯টা, ১০টা এবং ১০টা ৪৫ মিনিটে আরও তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

এ ছাড়া ঈদের প্রধান জামাত সকাল ৮টায় রাজধানীর জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঈদের প্রধান জামাতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য, পদস্থ সামরিক বেসামরিক কর্মকর্তারা অংশ নিয়েছেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ সংবাদ

নিজের বৌভাত অনুষ্ঠানের খাবার খেলেন হা*জতে বসে

মিরপুরের আ*গুনে পু*ড়েছে প্রায় ৩ হাজার ঘর